বার্তাবাংলা ডেস্ক »

maমা কথাটি ছোট্ট অতি/ কিন্তু যেন ভাই/ ইহার চেয়ে নাম যে মধুর/ তিন ভূবনে নাই। কবি সত্যিই বলেছেন। জগতের সকল দেশের, সকল ভাষায় সবচেয়ে মধুর নাম যে ‘মা’। সেই মাকে কি ভোলা যায়? কিন্তু কর্মব্যস্ত ডিজিটাল মানুষের মায়ের কাছে থাকার সময় কোথায়? আর তাইতো প্রতি বছর শুধু মায়ের জন্য রয়েছে একটি দিন। প্রতিবছর মে মাসের দ্বিতীয় রবিবারকে মা ও মাতৃত্বের প্রতি সম্মান দিতে এবং মাতৃত্বের বন্ধন অটুট রাখতে উদযাপন করা হয় ‘মা’ দিবস হিসাবে। বিভিন্ন দেশে এই দিনটিতে মাকে দেয়া হয় বিভিন্ন উপহার। বিংশ শতকের শুরুর দিকে এই দিবসটি প্রথম পালন শুরু হয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। প্রাচীন গ্রীক সভ্যতায় ও রোমানদের সাইবেল ও হিলারিয়া  সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে এই মা দিবসের উপাখ্যান দেখা যায়। খ্রীষ্টানদের মাদারিং সানডে নামে একটি উৎসবও রয়েছে। বাঙালির কাছে দেশ, মা ও মাটির টান হলো প্রতিদিনকার। প্রযুক্তির উৎকর্ষতায় ‘মা’য়ের মুখ দেখার সময় বড় কম। বলা হয়, বিজ্ঞান আমাদের দিয়েছে বেগ, কেড়ে নিয়েছে আবেগ। নিয়েছে মায়ের ভালবাসাও। ‘মা’ দিবস ফিরিয়ে দিক আমাদের মায়ের স্নেহ, ভালবাসা ও প্রতিদিনকার সান্নিধ্য।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »