ইয়াসমিন লিপি »

করোনা হেয়ারস্টাইলের কথা শুনে অবাক হচ্ছেন তো! স্বাভাবিক। গৃহবন্দি জীবনে একের পর এক তারকারা বাড়িতেই চুল কাটছেন। কেউ পার্টনারকে দিয়ে চুল কাটাচ্ছেন তো কারও জন্য বা আবার কাঁচি ধরেছেন তাঁদের ভাইবোনেরা। তবে এই করোনা আবহেই সচেতনতা বাড়াতে উদ্ভব হয়েছে এক নয়া হেয়ারস্টাইলের। যার নাম করোনা হেয়ারস্টাইল। না এর উৎপত্তি ঠিক ভারতে নয়! সুদূর কেনিয়ায়। যা সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন রীতিমতো চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে। বেশ ট্রেন্ডিংও বটে!

চুল নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করতে চাইলে আপনিও হোম কোয়ারেন্টাইন জীবনে মজার রসদ খুঁজে নিতে পারেন এই করোনা হেয়ারস্টাইলের মধ্য দিয়েই। কীভাবে? বাতলে দিচ্ছি আমরা।

চুল রং করা কিংবা ভিন্ন স্টাইলে কাটার শখ অনেকেরই রয়েছে। কিন্তু করোনা হেয়ারস্টাইল একেবারে নতুন। খুব একটা কঠিন কিছু নয়। বেশ সহজই। ড্রেডলক হেয়ারস্টাইলের কথা অনেকেই শুনেছেন। করোনা হেয়ারস্টাইলও খানিক সেরকমই। চুল গুলোকে প্রথমে ড্রেডলক করার জন্য ভাগ করে নিন। এরপর ড্রেডলক করে কষে বাঁধুন। শেষে গার্ডার দিয়ে বেঁধে নিন।

কেনিয়ার সেই হেয়ার ড্রেসারের উদ্দেশ্য ছিল, সস্তার হেয়ার স্টাইলের পাশাপাশি জনগণের কাছে সচেতনতা বৃদ্ধি করা। কেনিয়ায় অল্প বয়সিরা করোনা ভাইরাসের কথা মানলেও বয়স্করা অনেকেই মানতে চাইছেন না এর ভয়াবহতা। কিংবা এর মারণ ক্ষমতা। অগত্যা ফ্যাশনের মাধ্যমেই সতেচনতা প্রচার চালাবেন বলে ঠিক করে নিলেন কেনিয়ার শারন রেফা। মোক্ষম বিনুনি করে চুলকে ভাইরাসের স্ট্রাকচারের মতো বেঁধে দিচ্ছেন। আর চুল খুলে ফেললেই হেয় গেল কার্লি হেয়ারস্টাইল। ব্যাস! কমবয়সিরা কিন্তু বেশ মজেছে এই নয়া হেয়ারস্টাইলে। এতে সচেতনতা প্রচারও হল, আবার ফ্যাশনও।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »