বার্তাবাংলা ডেস্ক »

যুগ যুগ ধরে ইসলামের সোনালী আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ইসলামের সুশীতল ছায়াতলে আশ্রয় গ্রহণ করেছেন অগণিত মানুষ। ধনী-গরিব, উঁচু-নিচু, শিক্ষিত কিংবা অক্ষরজ্ঞানহীন কেউ বাদ যায়নি এ তালিকা থেকে। ইতালির রোমের অধিবাসী নারী মনোবিজ্ঞানী রোক্সানা ইলিনা নেগ্রা।

ইরানের মাশহাদ শহরের বিখ্যাত সাধক ইমাম রাজার সমাধিসৌধ কমপ্লেক্সে তিনি ইসলাম গ্রহণ করেন। ইসলাম গ্রহণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মনোবিজ্ঞান বিষয়ে ব্যাপক গবেষণা ও নবি-রাসুলদের জীবনাচার পড়েই ইসলামের সুমহান আদর্শে অনুপ্রাণিত হতে থাকেন।

পবিত্র কুরআন অধ্যয়ন করে ইসলামের আলোকিত জীবনে নিজেকে সাজাতে উদ্বুদ্ধ হন। আর তাতেই পেয়ে যান ইসলামের সুমহান সত্যের দাওয়াত।

রোক্সানা ইলিম নেগ্রার ভাষায়, ‘আমি মনোবিজ্ঞানের ছাত্র। আমি সব সময় শান্তির জন্য, সৃষ্টিকর্তার সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার জন্য এবং অসুস্থতা থেকে নিরাময়ের উপায় খুঁজে বের করার চেষ্টা ও গবেষণা করেছি। সব কিছু সুন্দর সমাধানে ইসলামকেই সবচেয়ে বেশি গ্রহণযোগ্য হিসেবে পেয়েছি। ইসলামেই রয়েছে সব কিছুর সঠিক সমাধান।’

তিনি আরো বলেন, ‘ইসলামের প্রধান ইবাদত ‘নামাজ’ অনুশীলন দুনিয়াতে প্রশান্তি লাভের অন্যতম সেরা মাধ্যম। যা মানুষ আল্লাহর ইবাদতের মাধ্যমে লাভ করে থাকে। নামাজের অনুশীলন পদ্ধতিও তাকে ইসলাম গ্রহণে আরো বেশি উদ্বুদ্ধ করে।

ইসলামের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে গবেষণা করতে করতে তিনি এ কথা বুঝতে সক্ষম হন যে, ইসলামই একমাত্র পরিপূর্ণ জীবন ব্যবস্থা। শান্তি ও নিরাপত্তায় পরিপূর্ণ সত্য ও সঠিক জীবনাচার।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »