বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Dating App

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলায় একটি বৌ-ভাত অনুষ্ঠান থেকে নববধূকে তুলে নেয়ার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার প্রধান আসামি নিমসার জুনাব আলী ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইসমাইল হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সোমবার গভীর রাতে দেবিদ্বার থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে নিমসার মাধবপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে কুমিল্লার আদালতে পাঠিয়ে পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দেবিদ্বার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জহিরুল আনোয়ার।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, দেবিদ্বার উপজেলার সূর্যপুর গ্রামের জাকির ফরাজীর মেয়ে ফাতেমা আক্তারের (১৯) সঙ্গে গত ১ ফেব্রুয়ারি একই উপজেলার সাহারপাড় গ্রামের মো. ইউনুছের ছেলে ছিদ্দিকুর রহমানের (২৫) বিয়ে হয়।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি দুপুরে বরের বাড়িতে বৌ-ভাতের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ওই দিন দুপুরে বুড়িচং উপজেলার নিমসার জুনাব আলী ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ইসমাইল ও সহযোগী সাকিবের নেতৃত্বে ৫০-৬০ জনের একটি দল দেবিদ্বার উপজেলার সাহারপাড় গ্রামে বৌ-ভাত অনুষ্ঠানে হামলা চালায়। নববধূ ফাতেমা আক্তারকে তুলে নিতে এসে গণধোলাইয়ের শিকার হন কয়েকজন।

স্থানীয় জনতা মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে গণপিটুনি দিয়ে ছাত্রলীগ নেতা ইসমাইলের সহযোগী জাফর হোসেন (১৮), সজিব পাল (১৮), কাউছার আহম্মেদ (২০), আলী হোসেন (২০), মেহেদী হাসান (১৮), মো. আলম (২২) ও নাইদুল ইসলামকে (১৮) পুলিশে সোপর্দ করে। ওই সময় প্রধান আসামি ইসমাইল হোসেন পালিয়ে আত্মগোপনে চলে যায়। এ ঘটনায় মামলা করেন নববধূর বাবা।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই সোহরাব হোসেন বলেন, ঘটনার পর পালিয়ে চট্টগ্রামে চলে যায় ইসমাইল হোসেন। দুইদিন আগে নিমসার ইউনিয়নের মাধবপুর গ্রামে আসলে সোমবার রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে কুমিল্লার আদালতে পাঠিয়ে পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।

 

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »