বার্তাবাংলা ডেস্ক »

বাংলাদেশ থেকে ১৫শ’র বেশি পর্ন ও অনলাইনে জুয়া (বেটিং) খেলার ওয়েবসাইট বন্ধ করা হয়েছে। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) এক নির্দেশনায় রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত এসব ওয়েবসাইট বন্ধ করা হয়।

চলতি মাসের ৬ তারিখ এ ধরনের ২৪৪টি সাইট ব্লক করার জন্য ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারনেট গেটওয়ে (আইআইজি) ও ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার (আইএসপি) প্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দেশনা দিয়েছিল বিটিআরসি। ওই অভিযানের অংশ হিসেবে দেশের নিয়ন্ত্রণ সংস্থাগুলো এ কাজে অংশ নিয়েছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) নাজমুল ইসলাম  বলেন, মাননীয় মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার স্যারের তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশ পুলিশের সকল সাইবার ইউনিট, র‌্যাব, বিটিআরসি, এনটিএমসি ও এটুআই-এর অংশগ্রহণে সামাজিক অবক্ষয় সৃষ্টিকারী পর্ন ও জুয়ার ওয়েবসাইট ব্লক করা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত (রোববার) ১৫০০-এর বেশি সাইট ব্লক করা হয়েছে।

একই সঙ্গে কারও কাছে এ ধরনের ওয়েবসাইটের তথ্য থাকলে পুলিশকে ই-মেইল (cyberunit@dmp.gov.bd) করে জানানোর অনুরোধও জানান তিনি।

বেসরকারি সংস্থা ‘মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন’র একটি গবেষণায় দেখা গেছে, ঢাকায় স্কুলগামী শিশুদের প্রায় ৭৭ ভাগ পর্নগ্রাফি দেখে। এর আগে ২০১৬ সালের ২৮ নভেম্বর সামাজিক অবক্ষয়ের জন্য দায়ী বেট থ্রি সিক্সটি ফাইভের মতো অনলাইনে বাজি ধরা, জুয়া ও পর্নগ্রাফির প্রায় ৫শ’ ওয়েবসাইট বন্ধ করা হয়েছিল। তবে তার কয়েকদিন পর থেকে সাইটগুলো আবারও সক্রিয় হয়।

২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে  দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার বলেছিলেন, ‘২০১৮ সালের নভেম্বরে একটি প্রকল্পের অধীনে স্থায়ীভাবে সাইটগুলো বাংলাদেশে বন্ধ করা হবে।’ নতুন সরকারের মন্ত্রিপরিষদে যোগদানের পর বিষয়টি নিয়ে আবারও উদ্যোগ গ্রহণ করছেন তিনি।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »