বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Dating App

হারিয়ে গেছে প্রিয়া। সেই প্রিয়াকে হারানোর যন্ত্রণা দেশের কোটি কোটি প্রেমিকের বুকে ছড়িয়ে দিয়েছিলেন বাংলা গানের যুবরাজ আসিফ আকবর। ও প্রিয়া ও প্রিয়া তুমি কোথায়…. সুরেলা সেই আর্ত চিৎকার আজও ছুটে বেড়াচ্ছে গ্রাম-শহর, দেশ-বিদেশের অলিতে গলিতে।

অসংখ্য প্রেমিকের ব্যথায় জন্ম হয়েছিল নতুন এক প্রিয়ার। তারই জন্মদিন। ১৯ বছর আগে আজকের দিনেই দিনেই প্রকাশ হয়েছিল আসিফ আকবরের ঐতিহাসিক অ্যালবাম ‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’। অ্যালবামটির ১৯তম জন্মদিনে প্রিয়াকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা ।

এই উপলক্ষ্যে আসিফ তার ফেসবুকে পেইজে একটা লেখা শেয়ার করেছেন। যেখানে লেখা, ‘সবার প্রিয়া বেঁচে থাকুক প্রিয়দের অন্তরে, শুভ জন্মদিন ‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’।

৩০ জানুয়ারি, ২০০১ সাল। প্রায় উনিশ বছর আগে কথা, প্রথমে ঢাকা শহরে এবং পরের দিন তা সারা দেশের প্রতিটি অলিগলি আর অডিও দোকানগুলোতে বেজে উঠেছিল ‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’।

অ্যালবামটি সংগ্রহে রাখার জন্য তখন মানুষ একরকম হুমড়ি খেয়ে পড়েছিল। এটি এমন একটি অ্যালবাম, যার প্রতিটি গান মানুষের মুখে মুখে ছিল। এখন পর্যন্ত দেশের অডিও ইন্ডাস্ট্রির ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় ও ব্যাবসা সফল অ্যালবামটি ‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’।

৬০ লাখেরও বেশি অ্যালবাম বিক্রি হয়েছিল। ইন্ডাস্ট্রিতে যে রেকর্ড আর কখনো কোনোদিন ভাঙবে না। আসিফ আকবর ইন্ডাস্ট্রিকে দেখিয়েছিলেন এক নতুন সম্ভাবনার স্বপ্ন। প্রায় একাই ইন্ডাস্ট্রিকে টেনেছেন এক দশকেরও বেশি সময়। এখনো তিনি তরুণদের নিয়ে অবিরাম স্বপ্ন দেখেন।

তিনি ইন্ডাস্ট্রিতে রাজত্ব কায়েম করে হয়েছেন বাংলা গানের ‘যুবরাজ’। অজস্র জনপ্রিয় গানে সমৃদ্ধ হয়েছে বাংলা সঙ্গীতের ভান্ডার। আসিফ আকবর সঙ্গীত জীবনের এতগুলো বসন্ত অতিক্রম করবার পরেও তার শুরুর দিকে গাওয়া এবং এখনকার গাওয়া গানগুলোর মাঝে খুব বেশি পার্থক্য পাওয়া যায় না। এখনও সমান তালেই গান গেয়ে চলেছেন জনপ্রিয় এই শিল্পী।

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »