বার্তাবাংলা ডেস্ক »

বিদেশ বিভূইয়ে জীবনে একটু ফুরসত পেলেই প্রবাসীরা জড়ো হন। একে অন্যের সাথে সুখ দুখ ভাগাভাগির সাথে সাথে গল্পে গল্পে চলে যান সাত সাগর তেরো নদীর ওপারে। পুরুষেরা দেশের রাজনীতি থেকে শুরু করে দেশে ফেলে আসা দিনের কথা যেমন আলাপ করেন তেমনি মহিলারা দেশের স্বজনদের গল্পে সময় পার করেন। পরবাসের এই প্রীতিবান্ধব পরিবেশ যেন মা মাটি দেশ ছেড়ে থাকতে শক্তি যোগায়।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের আজমানে সিলেট বিভাগ উন্নয়ন পরিষদের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মো. ইবরাহিম আলীর বাসভবন উদ্বোধন উপলক্ষে প্রায় হাজার প্রবাসীদের মিলনমেলা বসে। ব্যাচেলর এবং স্বপরিবারে আসা প্রবাসীরা যেন দেশের কোন উৎসবের মতো মেতে উঠেন আনন্দে।

মো. ইবারাহিম এর বাড়ি সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলায়। আল বার আল বাহার বিল্ডিং কন্ট্রাকটিং এর স্বাতাধিকারী তিনি। ২০১৬ সালে আজমানে নিজস্ব মালিকানায় এই জায়গা ক্রয় করে বাড়ি বানিয়েছেন। সেই বাড়িতে পাড়ি দিতে ছিলো এই আয়োজন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কমিউনিটির বিশিষ্টজন ও আওয়ামী লীগ নেতা ইসমাঈল গণি চৌধুরী, আমিরাত বিএনপির সভাপতি জাকির হোসাইন, সিলেট বিভাগ উন্নয়ন পরিষদ আমিরাত শাখার পৃষ্ঠপোষক নজরুল ইসলাম চৌধুরী, প্রধান উপদেষ্টা বদরুল হক চৌধুরী, উপদেষ্টা জাওয়াদুর রহমান সাবেক সিআইপি আশিক মিয়া, ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হাজী আব্দুর রব, সাধারণ সম্পাদক দেলওয়ার হোসেন চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক হুমায়ূন কবীর খন্দকার, ছালেহ আহমদ সহ আরো অনেকে।

প্রবাসের এমন অনুষ্ঠানগুলো দেশের খাঁটি আমেজ লক্ষ করা যায়। এখানে থাকে ভ্রাতৃত্ব আর প্রীতি বন্ধনের মায়াবি ছবি। আর এসব উৎসবে যেন আলোচনায় থাকে দেশ আর দেশের মানুষ। দূরদেশে নিজ দেশের মানুষের এসব প্রীতি বেঁচে থাকুক দেশী মানুষে মানুষে এমন প্রত্যাশা প্রবাসীদের।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »