পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই মাদক ব্যবসায়ী নিহত

বন্দুকযুদ্ধে

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত দুই মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে ৫টি দেশীয় বন্দুক, ২২ রাউন্ড গুলি ও ২২ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার ভোরে সাবরাং ইউনিয়নের হাড়িয়াখালী খুরের মুখ এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ।

নিহতরা হলেন, টেকনাফ সাবরাং ইউনিয়নের কচুবনিয়া এলাকার ইমাম শরীফের ছেলে আব্দুর রশিদ ডাইল্যা (৪৭) ও একই ইউনিয়নের কাটাবনিয়া এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে আবুল কালাম (৩৩)।

এ সময় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন, এসআই বোরহান উদ্দিন, এএসআই ফরহাদ ও কনেস্টবল হৃদয়।

পুলিশ সূত্র জানায়, বুধবার বিকেলে ওই দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়। পরে তাদের স্বীকারোক্তি মতো বৃহস্পতিবার ভোরে সাবরাং খুরের মুখ সমুদ্র সৈকত এলাকায় মজুদ রাখা ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধারে যায় পুলিশের একটি দল। এ সময় আটকদের দলের লোকজন পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে তাদেরকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। পরে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। হামলাকারিরা পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থল থেকে দুই জনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, নিহত দুজন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা ব্যবসায়ী। আব্দুর রশিদ ডাইল্যার ৬টি ও আবুল কালামের নামে ইয়াবা ও মানব পাচারসহ ১০টি মামলা রয়েছে।

মরদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আহত তিন পুলিশ সদস্যকে হাসাপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।