বার্তাবাংলা ডেস্ক »

জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি তার স্বামীর সঙ্গে থাকছেন না। স্বামীর সঙ্গে কয়েক বছরের সংসারের পর গত দুই মাস ধরে আর একসঙ্গে থাকছেন না তারা। তাদের মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় আলাদা থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দুজন মিলেই। এমনটাই জানিয়েছেন এই শিল্পী।

ন্যান্সি বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমি ময়মনসিংহে আছি। জায়েদ ও আমি দুই মাস ধরে আলাদা থাকছি। অস্ট্রেলিয়া সফর শেষে দেশে আসার পর থেকেই আমরা একসঙ্গে থাকছি না। জায়েদের বাসায় সে থাকছে আর আমার বাসায় আমি। তবে আমাদের মধ্যে এখনও বন্ধুত্বের সম্পর্ক অটুট রয়েছে। ভবিষ্যতে কি সিদ্ধান্ত নেব সেটা এখনও বলতে পারছি না।’

২০০৬ সালে হৃদয়ের কথা চলচ্চিত্রের গান গেয়ে তার সঙ্গীত জীবন শুরু করেন ন্যান্সি। ২০১১ সালে ‘প্রজাপতি’ চলচ্চিত্রের গানে কণ্ঠ দিয়ে তিনি প্রথমবারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান । হালের জনপ্রিয় এই কণ্ঠশিল্পী ২০০৬ সালে ভালোবেসে ব্যবসায়ী আবু সাঈদ সৌরভকে বিয়ে করেন। কিন্তু বছর কয়েক না যেতেই সংসারে ভাঙনের কথা শোনা যায়। এরপর সেটা সত্যি করে ২০১২ সালের ২৪ মে ছয় বছরের সংসার জীবনের আনুষ্ঠানিকভাবে ইতি টানেন ন্যান্সি। সেই সংসারে রোদেলা নামে তাদের এক মেয়ে আছে।

বিচ্ছেদের পর ২০১৩ সালের ৪ মার্চ আবার বিয়ে করেন ন্যান্সি। স্বামী নাজিমুজ্জামান জায়েদ ময়মনসিংহ পৌরসভায় চাকরি করেন এবং ব্যবসার সঙ্গেও জড়িত। জায়েদ এবং ন্যান্সির এই সংসারেও নায়লা নামে এক কন্যাসন্তান রয়েছে তাদের। কিন্তু নতুন বছরের শুরুতেই আবারও ভাঙনের সুর শোনা যাচ্ছে ন্যান্সির সংসারে। জানা গেল, ন্যান্সির বড় মেয়ে রোদেলা থাকছেন ন্যান্সির সঙ্গে আর জায়েদের সঙ্গে থাকছে ছোট মেয়ে নায়লা।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »