বার্তাবাংলা ডেস্ক »

রাষ্ট্রায়ত্ত আট ব্যাংকের মৌখিক পরীক্ষা ১০ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে। তা চলবে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংক মৌখিক পরীক্ষার তারিখ ও সময়সূচি নির্ধারণ করে এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।

গত ২২ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্য থেকে যোগ্য বিবেচিত ৪ হাজার ১১ প্রার্থীর মৌখিক পরীক্ষা নেবে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি।

ইতোমধ্যে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি লিখিত পরীক্ষায় পাস করা পরীক্ষার্থীদের তালিকা বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছে। সেখানে প্রকাশিত তারিখ ও সময়সূচি অনুযায়ী ক্রমান্বয়ে মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্র জানায়, রাষ্ট্রায়ত্ত তিন ব্যাংকসহ আট ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার (সাধারণ) ১ হাজার ৬৬৩টি শূন্যপদে নিয়োগ পরীক্ষায় অংশগ্রহণযোগ্য পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ২ লাখ ১৩ হাজার।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে জানানো হয়, মৌখিক পরীক্ষার জন্য পৃথকভাবে কোনো ইন্টারভিউ কার্ড ইস্যু করা হবে না। তবে লিখিত পরীক্ষার প্রবেশপত্রই মৌখিক পরীক্ষার প্রবেশপত্র হিসেবে গণ্য করা হবে। প্রার্থীদের অবশ্যই মৌখিক পরীক্ষা শুরুর ১ ঘণ্টা পূর্বে পরীক্ষাস্থলে উপস্থিত থাকতে হবে। এছাড়া প্রার্থীদের আবশ্যিকভাবে অনলাইন আবেদনে উল্লিখিত শিক্ষাগত যোগ্যতা ও নাগরিক সনদসহ সংশ্লিষ্ট সব দলিলাদি/সনদপত্রের মূলকপি এবং সত্যায়িত ফটোকপি বিএসসিএস এর চেকিং বোর্ডে নিম্নের ক্রমানুসারে প্রদর্শন ও দাখিল করতে হবে।

১. মহাব্যবস্থাপক ও সদস্য-সচিব, ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি সচিবালয়, বাংলাদেশ ব্যাংক, প্রধান কার্যালয়, ঢাকা বরাবর প্রার্থীর নিজ স্বাক্ষরযুক্ত স্বহস্তে লিখিত আবেদনপত্র।

২. আবেদনপত্রে সদ্য তোলা ০৩ (তিন) কপি রঙ্গিন পাসপোর্ট সাইজ ছবি (ছবির পিছনে প্রার্থীর নাম ও রোল নম্বর লিখিত) সংযুক্তি।

৩. লিখিত পরীক্ষার প্রবেশপত্র।

৪. শিক্ষাগত যোগ্যতার সব সনদপত্র।

৫. আবেদনে উল্লিখিত স্থায়ী ঠিকানার (বিবাহিত মহিলার ক্ষেত্রে স্বামীর স্থায়ী ঠিকানার) সমর্থনে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান/পৌরসভার মেয়র/ওয়ার্ড কমিশনার/কাউন্সিলর কর্তৃক প্রদত্ত হালনাগাদ জাতীয়তা সনদপত্র/নাগরিক সনদপত্র।

৬. মুক্তিযোদ্ধা সংক্রান্ত প্রার্থীদের মুক্তিযোদ্ধা সনদ সম্পর্কিত প্রমাণিক দলিলাদির সনদপত্র ।

৭. প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট অধিদফতর হতে প্রতিবন্ধীতার স্বপক্ষে প্রদত্ত সনদপত্র।

৮. চাকরিরত প্রার্থীদের ক্ষেত্রে তাদের স্ব-স্ব নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষের অনাপত্তিপত্র।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »