বার্তাবাংলা ডেস্ক »

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের মনোনীতদের চিঠি বিতরণ শুরু করেছে বিএনপি। রোববার দিনগত রাতে অনেকটা গোপনীতার মধ্য দিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয় থেকে এ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

আজ সোমবারও চলবে মনোনয়নের চিঠি বিতরণ কার্যক্রম এবং আগামীকাল মঙ্গলবার চূড়ান্ত প্রার্থীদের আংশিক তালিকা প্রকাশ করবে দলটি। বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী এবং সংশ্লিষ্ট দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

তারা জানান, রোববার রাতে বেশ কয়েকজনের হাতে দলীয় মনোনয়নের চিঠি তুলে দিয়েছে বিএনপি। তাদের মধ্যে ঝালকাঠি-২ আসনের মনোনয়নের চিঠি পেয়েছেন ইসরাত সুলতানা ইলেন ভুট্টো।

গাজীপুর-৪ আসনের বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী শাহ রিয়াজুল হান্নান জানান, দলীয় মনোনয়নের চিঠি নেওয়ার জন্য তাকে বিএনপির গুলশান কার্যালয় থেকে ফোন করা হয়েছে। সোমবার দুপুর ১টার মধ্যে সেখানে থাকতে বলা হয়েছে।

গুলশান কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ধানের শীষ প্রতীকে বিএনপির পক্ষ থেকে আসন প্রতি একাধিক প্রার্থীকে দলীয় মনোনয়নের চিঠি দেয়া হবে। একই সাথে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের সইও রাখা হবে। সম্ভাব্য প্রার্থীরা ওই চিঠিসহ মনোনয়নপত্র দাখিল করবেন।

পরে দলের পক্ষ থেকে আরেকটি চূড়ান্ত চিঠি দেয়া হবে। দলীয় প্রার্থীর প্রতীক সংক্রান্ত চিঠির একটি কপি ঢাকায় নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে জমা দেয়া হবে। আরেকটি কপি ফ্যাক্সে বা বিশেষ বার্তা বাহকের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীকে পাঠানো হবে। তিনি ওই চিঠি নিয়ে জেলা নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে জমা দেবেন।

তবে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার এবং শায়রুল কবীর খান বিষয়টি এড়িয়ে যান। বলেন, ‘চিঠি দেয়া হতে পারে।’
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির এক নেতা বলেন, প্রার্থী চূড়ান্তের ক্ষেত্রে বিএনপির যে সতর্কতা অবলম্বন করা দরকার সেটাই করা হচ্ছে। আওয়ামী লীগ যাদের প্রার্থী ঘোষণা করছে তাদের নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ হচ্ছে। এবার বিএনপির একই পরিবারের দু’জন মনোনয়ন পাবেন না। এখনই চূড়ান্ত প্রার্থী ঘোষণা হচ্ছে না। প্রত্যেক আসনেই বিকল্প প্রার্থী রাখা হচ্ছে।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী বলেন, নির্বাচন কমিশনের দেয়া সময় অনুযায়ী প্রার্থী ঘোষণা করা হবে।

দলের যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, মঙ্গল অথবা বুধবার প্রার্থীর চূড়ান্ত তালিকা ঘোষণা করা হবে। দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ছাড়া কেউ দুই আসনে এবার মনোনয়ন পাবেন না।

স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র বলেন, প্রার্থীর তালিকা চূড়ান্ত করতে আমরা কাজ করছি। চলতি সপ্তাহের যেকোনো দিন তালিকা চূড়ান্ত করে প্রকাশ করা হবে।

উল্লেখ্য, নির্বাচন কমিশনের পুনঃতফসিল অনুযায়ী আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২৮ নভেম্বর, মনোনয়ন বাছাই ২ ডিসেম্বর, প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৯ ডিসেম্বর এবং ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দের পর প্রার্থীরা আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচার শুরু করতে পারবেন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »