বার্তাবাংলা ডেস্ক »

বয়সটা তার ৩৪ ছুঁইছুঁই, কে বলবে? মাঠে এখনও তাগড়া জোয়ানের মতো পারফরম্যান্স ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর। রিয়াল মাদ্রিদে গত নয় বছর যা করে দেখিয়েছেন, জুভেন্টাসেও বোধ হয় সেটার ধারাবাহিকতায় ছেদ টানবেন না পর্তুগিজ যুবরাজ। যতই বয়সটা বাড়ুক।

শনিবার রাতেই যেমন ইতালিয়ান ক্লাবটির হয়ে নতুন এক ইতিহাস গড়লেন রোনালদো, স্পালের বিপক্ষে ম্যাচে। জুভেন্টাসের হয়ে ১৬তম ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন রোনালদো। ওই ম্যাচেই ক্লাবের হয়ে ১০ নাম্বার গোলটি তুলে নিয়েছেন তিনি।

তুরিনে ম্যাচের ২৯ মিনিটে ফ্রি কিক থেকে বল পেয়ে বাঁ পায়ের আলতো ছোঁয়ায় দারুণ এক গোল করেন রোনালদো। নামের পাশে নয়টি সিরিআ গোল আগেই ছিল। ওই গোলে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে জুভদের হয়ে ১০টি গোল হয়ে গেছে সিআরসেভেনের। জুভেন্টাসের ইতিহাসে যেটি সবচেয়ে দ্রুততম।

রোনালদোর সঙ্গে মারিও মানজুেকের গোলে শনিবারের ম্যাচটি ২-০ ব্যবধানে জিতেছে জুভেন্টাস। ম্যাচের পর পর্তুগিজ তারকাকে নিয়ে কোচ ম্যাসিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রি বলেন, ‘ক্রিশ্চিয়ানো এমন কিছু করতে পারে যার জন্য প্রতিপক্ষ আসলে প্রস্তুত থাকে না। ঠিক যেমনটা আমাদের দলের জন্য দরকার।’

ম্যাচে শুধু একটি গোলই করেননি। মানজুকিচের গোলের উৎসও ছিলেন রোনালদো। তিনি বক্সের বাঁ দিক থেকে বল বাড়িয়ে দিয়েছিলেন ডগলাস কস্তার দিকে। কস্তার শট গোলরক্ষক রুখে দিলেও ফিরতি বলে সেটা জালে জড়িয়ে দেন মানজুকিচ।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »