বার্তাবাংলা ডেস্ক »

সাকিব কোয়াডে ফেরায় স্বভাবতই অধিনায়কের আর্মব্যান্ডটাও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের বদলে চলে এসেছে সাকিবের হাতেই।

সাকিব ছাড়াও ১৩ সদস্যের স্কোয়াডে ফিরেছেন বাঁহাতি টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার। এছাড়া সাকিব ফেরা সত্ত্বেও ডানহাতি অফস্পিনার নাঈম হাসানকে স্কোয়াডে রেখেছে বিসিবি। সবশেষ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ থেকে বাদ পড়েছেন লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, আবু জায়েদ রাহী এবং নাজমুল ইসলাম অপু।

আগেই জানা গিয়েছিল তিন টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান নাজমুল শান্ত, ইমরুল কায়েস ও লিটন দাসের মধ্যে বাদ যাবেন একজন। কিন্তু ঘোষিত স্কোয়াড থেকে লিটন ও শান্ত- দুজনকেই বাদ দিয়ে দিয়েছে বিসিবি। অবশ্য বাদ দেয়ার কারণও পরিষ্কার। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে কিছুই করতে পারেননি শান্ত।

ওয়ানডে সিরিজে ব্যর্থতার পরে সিলেটে প্রথম টেস্টে খেলেছিলেন শান্ত। তার ব্যাট থেকে রান এসেছিল মোটে ১৮ (৫+১৩)। ভালো করতে পারেননি দুই ম্যাচেই খেলা ইমরুল ও লিটন। ওয়ানডে সিরিজে নিজেদের সামর্থ্যের প্রমাণ দেয়া ইমরুল ও লিটন টেস্ট সিরিজে পাননি একটি ফিফটিও। ইমরুল দুই ম্যাচের চার ইনিংসে করেছেন যথাক্রমে ৫, ৪৩, ০ ও ৩। লিটনের সংগ্রহ ছিলো যথাক্রমে ৯, ২৩, ৯ ও ৬।

লিটন ও শান্ত বাদ পড়লেও সিলেটের দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৩ রানের ইনিংস ও অভিজ্ঞতার কারণে টিকে গিয়েছেন ইমরুল। তাকে সঙ্গ দিতে নেয়া হয়েছে সৌম্য সরকারকে। এ দুজনই যে চট্টগ্রাম টেস্টে ইনিংস সূচনা করবেন তা এখন দিনের আলোর মতোই পরিষ্কার।

এছাড়াও সিলেটে নিজের অভিষেক ম্যাচে নিজের টেস্ট খেলার সামর্থ্য প্রমাণে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছেন ‘নাগিন’ খ্যাত বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম। যে কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজে জায়গা হয়নি অপুর। তার জায়গায় স্কোয়াডে সুযোগ পেয়েছেন ১৭ বছর বয়সী অফস্পিনার। যদিও শোনা যাচ্ছিলো সাকিব ফিরলে নাঈমকে নেয়া হবে না স্কোয়াডে।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের স্কোয়াডে আবু জায়েদ রাহী, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, শফিউল ইসলাম ও মোস্তাফিজুর রহমানকে নিয়েই গড়া হয়েছিল পেস ডিপার্টমেন্ট। কিন্তু ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে স্কোয়াডে রয়েছেন কেবল ঢাকা টেস্টে অভিষেক হওয়া খালেদ ও বাঁহাতি কাটার মাস্টার।

তবে দুই পেসার নিয়েই প্রথম টেস্টে নামবে বাংলাদেশ- এমনটা এখনই নিশ্চিত হওয়ার সুযোগ নেই। কেননা টেস্ট সিরিজের আগে রোববার থেকে শুরু হতে যাওয়া দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে রুবেল হোসেন ও শফিউল আহমেদের বোলিংয়ের দিকে নজর রাখবে বিসিবি। এদের মধ্যে যেকোনো একজনকে স্কোয়াডে নিয়ে দলের খেলোয়াড় সংখ্যা ১৪-তে উন্নীত করা হবে।

আগামী ২২ নভেম্বর চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচে খেলবে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। পরে ঢাকায় ফিরে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট মাঠে গড়াবে মাসের ৩০ তারিখে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে বাংলাদেশ স্কোয়াড

সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, মোহাম্মদ মিঠুন, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, আরিফুল হক, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদি হাসান মিরাজ, মোস্তাফিজুর রহমান, তাইজুল ইসলাম, সৈয়দ খালেদ আহমেদ ও নাঈম হাসান।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »