বার্তাবাংলা ডেস্ক »

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে নির্বাচনকালীন সরকারের যেসব জিনিস আমরা চিহ্নিত করেছি, আমরা আশা করব যে, এসব ব্যাপারে সংবাদমাধ্যম সজাগ দৃষ্টি রাখবে।

শুক্রবার বিকেলে গুলশানে একটি হোটেলে বিভিন্ন সংবাদপত্রের সম্পাদক ও জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভা শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

কামাল হোসেন বলেন, আমরা সম্পাদকদের সঙ্গে দুই ঘণ্টা মতবিনিময় করেছি। তারা বিভিন্ন বিষয়ে মতামত দিয়েছেন, আমাদেরও দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন যে, সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য আমাদের কাছ থেকে তারা কী আশা করেন। এই মতবিনিময় আমাদের জন্য খুবই মূল্যবান বলে মনে করি।

ঐক্যফ্রন্টের এই শীর্ষ নেতা বলেন, এডিটর সাহেবদের সঙ্গে আমাদের আলোচনার উদ্দেশ্য ছিল কী কী জিনিস তারা অতীতে দেখেছেন, এবার সেগুলো থেকে আমাদের বিরত থাকা উচিত বলে তারা মনে করেন…। সুষ্ঠু নির্বাচন করতে সরকারের যেমন কর্তব্য আছে, আমরা যারা বিরোধী পক্ষ, নির্বাচন করতে যাচ্ছি, নির্বাচনের পরিবেশ রক্ষা করা আমাদেরও কর্তব্য, যাতে নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়।

মতবিনিময় সভায় সম্পাদকদের মধ্যে উপস্থিতি ছিলেন প্রথম আলোর মতিউর রহমান, হলিডের সৈয়দ কামালউদ্দিন, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের তৌফিক ইমরোজ খালিদী, মানবজমিনের মতিউর রহমান চৌধুরী, নিউএজ’র নুরুল কবীর, আমাদের নতুন সময়ের নাঈমুল ইসলাম খান, ঢাকা ট্রিবিউনের জাফর সোবহান, দিনকালের রেজোয়ান সিদ্দিকী।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে ড. কামাল হোসেনসহ উপস্থিত ছিলেন বিএনপির মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, জেএসডির আ স ম আবদুর রব, তানিয়া রব, গণফোরামের মোস্তফা মহসিন মনটু, সুব্রত চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সুলতান মো. মনসুর আহমেদ। এ ছাড়া গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপির আসদুজ্জামান রিপন, শামা ওবায়েদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »