বার্তাবাংলা ডেস্ক »

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় লটারিতে ১৬০ কোটি ডলার জিতেছেন এক ব্যক্তি। বিজয়ী টিকিটটি বিক্রি হয়েছিল দক্ষিণ ক্যারোলাইনা অঙ্গরাজ্যে। ভাগ্যবান ওই বিজয়ীকে নিয়ে এখন শুরু হয়েছে জল্পনা। খোঁজা হচ্ছে কে এই বিজয়ী।

বিজয়ী টিকিটটি যে কিনেছেন তিনি ১ দশমিক ৬ বিলিয়ন বা ১৬০ কোটি ডলার পাবেন। যুক্তরাষ্ট্রের লটারির নিয়ম অনুযায়ী এ অর্থ তিনি একবারেও নিতে পারেন বা ২৯টি কিস্তিতেও নিতে পারবেন। তবে তাকে অবশ্যই কর দিতে হবে। কর দেয়ার পরও ৯১ কোটি ৩০ লাখ ডলার পাবেন তিনি।

লটারির ড্র-তে ১.৬ বিলিয়ন ডলার-জয়ী যে ছয়টি সংখ্যা উঠেছে তা হলো- ২৮, ৭০, ৫, ৬২, ৬৫ এবং মেগা বল ৫। এই নম্বরের টিকিটটি দক্ষিণ ক্যারোলাইনা রাজ্যে বিক্রি হয়েছে বলে জানিয়েছেন মেগা-মিলিয়ন নামের লটারি কোম্পানির কর্মকর্তারা।

এখন জল্পনা শুরু হয়েছে সেই বিজয়ী এতো অর্থ দিয়ে কী করবেন। তিনিই বা কে? কেউ বলছেন, তিনি একটা দ্বীপ কিনতে পারেন, কেউ বলছেন উচ্চগতি সম্পন্ন স্পোর্টস কার, কেউ বলছেন -না তিনি হয়তো নিজে দোকান খুলতে পারেন, অনেক চাকরি সৃষ্টি করতে পারেন।

এদিকে বিজয়ী ১৬০ কোটি ডলারের পুরোটা বা একাংশ পেতে পারবেন -তা নির্ভর করছে অন্য ড্রগুলোতে কারা বিজয়ী হয়েছেন তা নিশ্চিত হওয়ার ওপর। গত জুলাই মাস থেকে এ লটারি চলছে, কিন্তু কেউই শীর্ষ পুরস্কার জয়ী হতে পারেননি। তাই শীর্ষ পুরস্কারের অর্থের পরিমাণ গত কয়েক মাস ধরে ক্রমাগত বেড়ে দেড়শ কোটি ডলার ছাড়িয়ে গেছে।

এই লটারির একটি টিকিট কিনে বিজয়ী হওয়া সম্ভাবনা খুবই কম। বিশেষজ্ঞরা বলছেন -এই সম্ভাব্যতা প্রতি ৩০ কোটি লোকের মধ্যে একজন। এই লটারিতে অন্য আরও ১৫টি টিকিটের পুরস্কার হচ্ছে প্রতিটি ১ মিলিয়ন বা ১০ লাখ ডলার করে।

যুক্তরাষ্ট্রে এর আগে সবচেয়ে বড় অংকের লটারি জেতার ঘটনা ঘটেছিল ২০১৬ সালে। সে বছর পাওয়ারবল লটারিতে ক্যালিফোর্নিয়া, ফ্লোরিডা এবং টেনেসির তিনজন টিকিটধারী মিলে ১৫৮ কোটি ডলার জিতেছিলেন। সূত্র : বিবিসি

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »