বার্তাবাংলা ডেস্ক »

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাংলাদেশের রাজনীতিতে অসুর শক্তি হলো বিএনপি। এই অশুভ শক্তিকে পরাজিত করতে হবে, পরাভূত করতে হবে। আমি বলে গেলাম, বিএনপি যতদিন এ দেশের রাজনীতিতে আছে শান্তি আসবে না।

বুধবার রাতে শারদীয় দুর্গোৎসবের অষ্টমীতে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। মেধাবী ও কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনার এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সনাতন সমাজ কল্যাণ সংঘ।

এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের বলেন, এ দল (বিএনপি) বাংলাদেশের রাজনীতিতে থাকতে দেশে শান্তি আসবে না। বিএনপি নেতৃত্বে থাকা সাম্প্রদায়িক শক্তি চায় না ভারতের সঙ্গে আমাদের সুসম্পর্ক থাকুক। এই সুসম্পর্ক যাতে করে নষ্ট হয়, সেজন্য এরা দেশের বিভিন্ন জায়গায় অশান্তি সৃষ্টি করতে পারে, উসকানি দিতে পারে। এরা অসুর…সাম্প্রদায়িক শক্তি হচ্ছে অসুর শক্তি।

সনাতন ধর্মালম্বীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, প্রতিবেশী দেশ ভারতের সঙ্গে আমাদের চমৎকার সম্পর্ক বিরাজ করছে। আমাদের সরকারের সময়ে ভারতের সঙ্গে দীর্ঘদিনের সীমান্ত সমস্যার সমাধান হয়েছে। আমার বিশ্বাস করি, এ পথ ধরে তিস্তা সমস্যারও সমাধান হবে। গঙ্গার পানি সমস্যার সমাধান হয়েছে, তিস্তারও যথেষ্ট অগ্রগতি হয়েছে।

আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, সনাতন ধর্মালম্বীদের জন্য নিরাপদ আবাসস্থল বাংলাদেশ। তারা বাংলাদেশে নিরাপত্তা খুঁজে পায়, যারা হিন্দু সমাজের জায়গা-জমি মন্দির- এগুলো দখলের মানসিকতা রাখে, তারা কোনো দলের নয়। এরা দুর্বৃত্ত… এরা আপনাদের যেমন শত্রু, আমাদেরও শত্রু।

সতর্কবার্তা দিয়ে কাদের বলেন, সরকারের পলিসি যদি এন্টি মাইনোরিটি হয়, কত ভয়াবহ পরিণতি হতে পারে তার প্রমাণ ২০০১ সাল। মাইনোরিটিদের ওপর ২০০১ সালের নির্যাতনের বিভীষিকা আবারও ফিরে আসবে যদি শেখ হাসিনা ক্ষমতায় না থাকেন।

তিনি বলেন, বিএনপি একটি সাম্প্রদায়িক দল। এদের হাতে সনাতন ধর্মালম্বীরা অতীতেও নিরাপদ ছিল না, ভবিষ্যতেও থাকবে না। আমাদেরও কিছু ভুল ত্রুটি থাকতে পারে, আওয়ামী লীগ সরকারের সব জায়গায় ভালো লোক এ দাবি আমি করবো না। কিছু লোক আছে ক্ষমতাসীন দলে ঢুকে শুধু অপকর্ম করার জন্য। আমরা তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিয়েছি।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »