বার্তাবাংলা ডেস্ক »

প্রাকৃতিক উপাদন দিয়ে তৈরি ব্রিটেনের বিশ্বখ্যাত প্রসাধনী ও টয়লেট্রিজ পণ্যের ব্র্যান্ড ‘দ্যা বডি শপ’ এখন বাংলাদেশে। পরিবেশ সচেতন এই প্রশাধনীর স্টোর চালু হয়েছে যমুনা ফিউচার পার্কের প্রথম ফ্লোরে। বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার কানবার হোসেইন-বোর শুক্রবার বিকেলে এক আড়ম্বরপূর্ণ অনু্ষ্ঠানের মাধ্যমে স্টোরটি উদ্বোধন করেন। ৭০তম আন্তর্জাতিক বাজার হিসেবে বাংলাদেশে তাদের স্টোর চালু করা হলো। বর্তমান বিশ্বজুড়ের তাদের তিন হাজারেরও বেশি স্টোর রয়েছে।

বাংলাদেশে ‘দ্যা বডি শপ’ তাদের আইকনিক হোয়াইট মাস্ক, বডি বাটার এবং ভিটামিন-ই রেঞ্জারের পাশাপাশি নিয়ে এসেছে নতুন সংযোজন বডি ইয়োগার্ট।

স্টোরটি উদ্বোধনের সময় কানবার হোসেইন-বোর বলেন, বাংলাদেশের মতো দ্রুত উন্নয়নশীল দেশে বডিশপ শুরু হলো। এর মাধ্যমে বাংলাদেশেও এই প্রডাক্টটির যাত্রার সঙ্গী হলো। বাংলাদেশের একটি সমৃদ্ধ গর্বিত অতীত ইতিহাস রয়েছে। বডিশপের ইতিহাস সমৃদ্ধ। তাই আমি আশা করি, বাংলাদেশে এর যাত্রা খুবই ফলপ্রসু হবে। এই পণ্যটি ব্রিটেনে তৈরি হলেও বাংলাদেশ আজ থেকে এর অংশ হয়ে গেল।

এ সময় বডিশপ এশিয়া প্যাসিফিক ফ্রাঞ্চাইজের জেনারেল ম্যানেজার অ্যানি চ্যান বলেন, বাংলাদেশের বডিশপ নিয়ে আসতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত। আমাদের বিশ্বাস যে, আমাদের পার্টনার, কোয়েস্ট রিটেইল তাদের দক্ষতা ও স্থানীয় জ্ঞান কাজে লাগিয়ে আমাদের মানসম্মত পণ্য সম্ভাবনাময় এই বাজারের সকল গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দিতে সক্ষম হবে।

পণ্যটির এশিয়া প্যাসিফিক ফ্রাঞ্চাইজের অ্যাকাউন্ট ম্যানেজার রাসেল ডে চেরন্যাটলি বলেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশের নারীদের মন জয় করতেই আমরা এসেছি। আশা করি, দ্রুতই তা করে ফেলব। অবশ্য এ দেশের অনেক নারী আগে থেকেই এই পণ্য ব্যবহর করে আসছেন। তবে এখন তারা দেশেই কিনতে পারবেন।
দ্যা বডিশপের বাংলাদেশের পরিচালক শ্রীতি মালহোত্রা বলেন, আমাদের সব পণ্য প্রাকৃতিকভাবে তৈরি। এই পণ্যে পশুর কোনো অংশ ব্যবহার করা হয় না। নারীদের মতো এরও প্রকৃতিরে সঙ্গে নিগূঢ বন্ধন।

আয়োজকরা বলেন, দ্যা বডি শপ ১৯৭৬ সালে ইংল্যান্ডের ব্রাইটনে আনিটা রডিমের হাতে প্রতিষ্ঠিত একটি আন্তজার্তিক বিউটি ব্র্যান্ড। এখানে উন্নতমানের স্কিনকেয়ার, হেয়ার কেয়ার এবং মেকআপ পণ্য উৎপাদন করা হয়।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »