ব্লাসফেমি আইন প্রণয়নের পরিকল্পনা নেই : শেখ হাসিনা » Leading News Portal : BartaBangla.com

বার্তাবাংলা ডেস্ক »

sheikh hasinaবার্তাবাংলা রিপোর্ট :: ব্লাসফেমি (ধর্ম অবমাননা) আইনের আদলে নতুন কোনো আইন প্রণয়নে সরকারের পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ কথা জানান তিনি। এছাড়া বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে সেনা হস্তক্ষেপ, ব্লগারদের গ্রেপ্তার ও তত্ত্বাবধায়ক সরকার নিয়ে বিরোধীদলের সঙ্গে আলোচনাসহ বিভিন্ন বিষয়েও কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে ব্লগারদের গ্রেপ্তার করা ও ব্লাসফেমি আইনের আদলে নতুন আইনের ১৩ দফা দাবিতে গত ৬ এপ্রিল হেফাজতে ইসলাম সারাদেশ থেকে ঢাকায় লংমার্চ করে। দাবি আদায়ে সোমবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালনেরও ঘোষণা দেয় তারা।

তাদের এসব দাবি প্রসঙ্গে বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বিশেষ ক্ষমতা আইনসহ প্রচলিত অনেক আইনেই ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগের ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়ার সুযোগ রয়েছে।

তবে তিনি এও বলেছেন, হেফাজতের দাবিগুলোর মধ্যে কিছু গ্রহণযোগ্য থাকলে তা বিবেচনা করবে সরকার।

হেফাজতে ইসলামের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ব্লগারদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে—এমন অভিযোগ নাকচ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আইন ভঙ্গ হয় এমন কিছু লেখার কারণেই তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের নামে আওয়ামী লীগ ফায়দা লুটছে—এ অভিযোগ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ বিচার নিয়ে মানুষ বিভক্ত নয়।

সাম্প্রতিক সময়ে বিএনপি-জামাতের সহিংসতায় হতাহতের ঘটনায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বল প্রয়োগের যে অভিযোগ তারও জবাব দেন তিনি।

তবে সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে সেনাবাহিনী হস্তক্ষেপ করবে কি না—এ প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সেনাবাহিনী রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে হস্তক্ষেপ করবে না।

এছাড়া তত্ত্বাবধায়ক ইস্যুতে বিরোধীদলের সঙ্গে আলোচনায় সরকারের আগ্রহের কথা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ নিয়ে বিরোধীদলকে সংসদে এসে দাবি তুলে ধরতে হবে।

এছাড়া তত্ত্বাবধায়ক ইস্যুতে বিরোধী দলের সঙ্গে আলোচনায় সরকারের আগ্রহের কথা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের চলমান অস্থিরতায় বিদেশি বিনিয়োগকারীদের উদ্বেগের কোনো কারণ নেই।

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

আমি ফারজানা চৌধুরী তন্বী। লেখালিখি করি ফারজানা তন্বী নামে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করার পর আজ প্রায় পাঁচ বছর ধরে লেখালিখির সঙ্গেই আছি। বার্তাবাংলা’য় কাজ করছি সিনিয়র রিপোর্টার হিসেবে। আমার বিশেষ আগ্রহের ক্ষেত্র ফিচার, প্রযুক্তি আর লাইফস্টাইল। ভালো লাগে ভ্রমণ, বইপড়া, বাগান করা আর ইন্টারনেট নিয়ে পড়ে থাকা :)

মন্তব্য করুন »