বার্তাবাংলা ডেস্ক »

মধ্য আফ্রিকার দেশ ডেমোক্র্যাটিক রিপাবলিক অব কঙ্গোতে তেলবাহী একটি ট্যাঙ্কারের সঙ্গে বাসের সংঘর্ষে কমপক্ষে ৫০ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়াও অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন শতাধিক মানুষ। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এ দুর্ঘটনার তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় কিসান্তু শহরের রাস্তায় একটি বাসের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ট্যাঙ্কারটি বিস্ফোরিত হলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। রাজধানী কিনশাশা থেকে দেশটির প্রধান সমুদ্র বন্দর মাতাদি যাওয়ার পথে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে ওই তেলবাহী ট্যাঙ্কারটি।

কঙ্গোর মধ্যাঞ্চলের গভর্নর অটো মাতাবুয়ানা বলেন, ৫০ জন নিহত ছাড়াও ১০০ জন অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় অনেককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জাতিসংঘের ওকাপি রেডিও জানায়, বিস্ফোরণের পর নিকটবর্তী বাড়িগুলোতে দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

একজন প্রতক্ষ্যদর্শী বার্তাসংস্থা এএফপিকে বলেন, তারা ৫৩ টি অগ্নিদগ্ধ মৃতদেহ নিয়ে যেতে দেখেছে। স্থানীয় হাসপাতালের একজন ডাক্তার বলেন, ‘অল্প সময়ের মধ্যে এতসব মানুষকে চিকিৎসা দেয়া একটা অসাধ্য ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবুও আমরা সাধ্যের সবটুকু দিয়ে সেবা করার চেষ্টা করছি। কিন্তু যাদেরকে বাঁচাতে পারছি না তাদের জন্য কষ্ট পাওয়া ছাড়া আর কিছুই করার নেই আমাদের।’

উল্লেখ্য, মধ্য আফ্রিকার দেশগুলোতে যুদ্ধ পরিস্থিতির পর রাস্তাগুলো অবহেলিতই থেকে গেছে। এর আগে ২০১০ সালে একটি ট্যাংকার বিস্ফোরণে ২২০ জন নিহত হয়। এছাড়াও আগুনে পুড়ে গিয়েছিলো পুরো একটা গ্রাম।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »