বার্তাবাংলা ডেস্ক »

সোমবার রাতে লন্ডনে জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ঘোষণা দেয়া হয় ‘দ্য বেস্ট ফিফা ফুটবল অ্যাওয়ার্ড’ এর। ফিফার বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরষ্কার জিতেছেন লুকা মদ্রিচ, বর্ষসেরা গোলরক্ষক নির্বাচিত হয়েছেন থিবো কুর্তোয়া, বর্ষসেরা গোলের পুরষ্কার জিতেছেন মোহাম্মদ সালাহ।

কিন্তু ঝামেলা বেঁধেছে অন্য জায়গায়। ফিফার বর্ষসেরা একাদশে ঠাই মেলেনি বর্ষসেরা গোলরক্ষক থিবো কুর্তোয়া কিংবা বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের তিনজনের সংক্ষিপ্ত তালিকায় থাকা মোহাম্মদ সালাহরও। অনুমিতভাবেই বর্ষসেরা একাদশ থেকে জায়গা হারিয়েছেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমারও।

রাশিয়া বিশ্বকাপে বাচ্চাসুলভ বেশ কিছু ভুল হাস্যরসের শিকার হয়েছিলেন স্প্যানিশ গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়া। তবু কেবলমাত্র ক্লাবের পারফরম্যান্স দিয়েই পেছনে ফেলে দিয়েছেন বেলজিয়ামের হয়ে বিশ্বকাপে দুর্দান্ত খেলা থিবো কুর্তোয়াকে। কুর্তোয়ার বদলে ডি গিয়ার জায়গা পাওয়া নিয়েই তৈরি হয়েছে যতো সংশয়।

ডি গিয়ার সাথে বর্ষসেরার একাদশের রক্ষণ সামাল দেয়ার দায়িত্ব পেয়েছেন দুই ব্রাজিলিয়ান মার্সেলো ও দানি আলভেস। তাদের সাথে রক্ষণে থাকবে ফ্রান্সের রাফায়েল ভারানে ও স্পেনের সার্জিও রামোস। সেরা একাদশের মাঝমাঠে রয়েছেন এনগোলো কান্তে, লুকা মদ্রিচ ও এডেন হ্যাজার্ড।
লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সাথে আক্রমণ সাজানোর দায়িত্বে থাকছেন রাশিয়া বিশ্বকাপে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের পুরষ্কার জেতা কাইলিয়ান এমবাপে।

ফিফা বর্ষসেরা একাদশ: ডেভিড ডি গিয়া (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড/স্পেন), দানি আলভেস (পিএসজি/ব্রাজিল), রাফায়েল ভারানে (রিয়াল মাদ্রিদ/ফ্রান্স), সার্জিও রামোস (রিয়াল মাদ্রিদ/স্পেন), মার্সেলো ভিয়েরা (রিয়াল মাদ্রিদ/ব্রাজিল), এনগোলো কান্তে (চেলসি/ফ্রান্স), লুকা মদ্রিচ (রিয়াল মাদ্রিদ/ক্রোয়েশিয়া), এডেন হ্যাজার্ড (চেলসি/বেলজিয়াম), কাইলিয়ান এমবাপে (পিএসজি/ফ্রান্স), লিওনেল মেসি (বার্সেলোনা/আর্জেন্টিনা) ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো (জুভেন্টাস/পর্তুগাল)।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »