বার্তাবাংলা ডেস্ক »

ধর্মীয় বৈচিত্র্যতা, ধার্মিক জনসংখ্যা, ধর্মীয় স্বাধীনতা, সহনশীলতাসহ বেশ কয়েকটি মানদণ্ডের ভিত্তিতে বিশ্বের সবচেয়ে ধর্মীয় সুখী দেশের তালিকার শীর্ষ স্থানে রয়েছে কানাডা। তবে তালিকার শেষের দিকে রয়েছে বাংলাদেশ।

১১৫টি দেশকে নিয়ে বৈশ্বিক ধর্মীয় সুখী দেশের এই তালিকায় বাংলাদেশ রয়েছে ৮৩তম অবস্থানে। যুক্তরাজ্যভিত্তিক বিলাসবহুল ভ্রমণ পরিকল্পনা সংস্থা ওয়ে ফেয়ারার ট্রাভেল এই তালিকা প্রকাশ করেছে।

ধর্মীয় বৈচিত্র্যতা, ধার্মিক জনসংখ্যা, ধর্মীয় স্বাধীনতা, সহনশীলতা, আধ্যাত্মিকতা, সুস্বাস্থ্য ও জীবন-যাপনের মান; এই সাতটি মানদণ্ডের প্রত্যেকটিতে স্কোর ৭ ধরে মোট ৪৯ স্কোর নির্ধারণ করা হয়েছিল।

ওয়ে ফেয়ারার ট্রাভেলের এই তালিকার শীর্ষে থাকা কানাডা ধর্মীয় বৈচিত্র্যতা সূচক ও জীবন-যাপনের মানে সর্বোচ্চ স্কোর ৭ করে পেয়েছে; অন্যান্য পাঁচটি সূচকের চারটিতে ৬ করে এবং ধর্মীয় জনসংখ্যায় পেয়েছে ২। মোট ৪৯ স্কোরের মধ্যে ৪০ পেয়ে শীর্ষে রয়েছে কানাডা।

কানাডার পরে শীর্ষ দশ দেশের তালিকায় দ্বিতীয় ইতালি (৩৬স্কোর), তৃতীয় ভারত, জাপান, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র। এই চার দেশের স্কোর সমান ৩৪ করে হলেও ধর্মীয় বৈচিত্র্যতা ও জীবন-যাপনের মানের তারতম্যের কারণে জাপান চতুর্থ, যুক্তরাজ্য পঞ্চম ও যুক্তরাষ্ট্র ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে।

এছাড়া অপর চার দেশের মধ্যে মেক্সিকো ৩৩ স্কোর পেয়ে সপ্তম, অস্ট্রেলিয়া এবং ফিলিপাইন সমান ৩২ স্কোর পেয়ে অষ্টম এবং নবম ও সমান ৩১ স্কোর পেয়ে জার্মানি এবং সুইজারল্যান্ড যথাক্রমে দশম এবং এগারোতম স্থানে রয়েছে।

দক্ষিণ ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে ভারত। দেশটি ৩৬ স্কোর নিয়ে তৃতীয় স্থানে থাকলেও বাংলাদেশ এই তালিকায় রয়েছে ৮৩ তম অবস্থানে; স্কোর ১৯। অন্যদিকে, নেপাল ২৭ স্কোর পেয়ে ২৩ তম, শ্রীলঙ্কা ২৬ পেয়ে ২৮, ২৪ পেয়ে সিঙ্গাপুরের স্থান ৪১ তম।

১৮ স্কোর পেয়ে পাকিস্তানের অবস্থান ৯৩ তম। তালিকার একেবারে তলানিতে রয়েছে সিরিয়া (১১৫তম); সাত সূচকে দেশটির মোট স্কোর ১২।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »