বার্তাবাংলা ডেস্ক »

ব্যাট হাতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চলতি সিরিজে শনির দশা পার করছেন ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুল। ৫ ম্যাচের ৯ ইনিংসে নেই একটি ফিফটিও। ইনিংস সর্বোচ্চ রান মাত্র ৩৭। সর্বসাকুল্যে সিরিজের মোট রান কেবল ১৫০। যা কিনা ভারতীয় ওপেনারের সাথে কখনোই মানানসই।

সিরিজে টানা ব্যর্থতার পরেও সবগুলো ম্যাচ খেলেছেন রাহুল। কারণ তার ব্যাটিং নয়, ভরসা করার মতো ফিল্ডিং। ব্যাট হাতে দলের নির্ভরতার প্রতীক হতে না পারলেও ফিল্ডিংয়ে নেমে ঠিকই অধিনায়কের আস্থা জয় করে নিয়েছেন রাহুল।

এখনো পর্যন্ত ৫ ম্যাচের ৯ ইনিংসে ফিল্ডিং করে ১৩টি ক্যাচ ধরেছেন রাহুল। যা কিনা ইংল্যান্ডের মাটিতে এক সিরিজে সর্বোচ্চ ক্যাচ ধরার রেকর্ড। এতদিন ধরে ১২টি ক্যাচ নিয়ে এই রেকর্ডের মালিক ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকা জন আইকিন।

শুধু ইংল্যান্ডের মাটিতে রেকর্ড গড়াই নয়, রাহুল ছুঁয়েছেন দেশের হয়ে এক সিরিজে সর্বোচ্চ ক্যাচ ধরার রেকর্ডও। ২০০৪-০৫ মৌসুমে বর্ডার-গাভাস্কার ট্রফির চার ম্যাচে ১৩টি ক্যাচ ধরেছিলেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক রাহুল দ্রাবিড়। পঞ্চম ম্যাচে স্টুয়ার্ট ব্রডের ক্যাচ ধরার মাধ্যমে এই রেকর্ডে ভাগ বসান।

দ্রাবিড়ের রেকর্ড ছোঁয়া রাহুলের সামনের এখন অপেক্ষা করছে এক সিরিজে সর্বোচ্চ ক্যাচ ধরার বিশ্বরেকর্ডটি। ১৯২০-২১ মৌসুমের এশেজ সিরিজে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার জ্যাক মরিসন গ্রেগরি তালুবন্দী করেছিলেন ১৫টি ক্যাচ। যা কি-না প্রায় ১০০ বছর ধরে বহাল তবিয়তে রয়েছে বিশ্ব রেকর্ড হিসেবে।

চলতি ম্যাচে ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংসে রাহুল মাত্র ২টি ক্যাচ ধরলেই রাহুল ভাগ বসাবেন বিশ্ব রেকর্ডে। আর তিনটি ক্যাচ ধরলে ভেঙে ফেলবেন শতবর্ষ পুরনো রেকর্ডটি। এক ইনিংসে তিন ক্যাচ নেয়া কঠিন হওয়ার কথা নয় রাহুলের জন্য। কেননা চলতি সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে, ট্রেন্ট ব্রিজে এক ইনিংসেই যে ৭টি ক্যাচ ধরেছিলেন তিনি।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »