বার্তাবাংলা ডেস্ক »

বর্তমান সরকারের শেষ সংসদ অধিবেশনে সড়ক পরিবহন আইন পাস হবে বলে জানিয়েছেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে সড়ক দুর্ঘটনা রোধে বুদ্ধিজীবী ও বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা শেষে মন্ত্রী একথা জানান।

আগামী ৯ সেপ্টেম্বর বসছে জাতীয় সংসদের ২২তম অধিবেশন। এটাই বর্তমান সরকারের শেষ অধিবেশন।

শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনের মধ্যে গত ৬ আগস্ট ‘সড়ক পরিবহন আইন, ২০১৮’ এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা।

কলামিস্ট ও লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ ও নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) আন্দোলনের চেয়ারম্যান ও চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন খসড়া নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের কিছু কিছু বিষয় সংশোধনের দাবি জানান।

এর পরিপ্রেক্ষিতে সড়ক পরিবহন মন্ত্রী বলেন, ‘সংসদে উপস্থাপনের পর আইনটি চলে যাবে সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে। সংসদীয় কমিটির চেয়ারম্যান আপনাদের ডাকবেন, পরামর্শ শুনবেন। এখনও একেবারে এটাই ফাইনাল নয়। কিছু কিছু জায়গায় সংযোজন, সংশোধনের সুযোগ আছে। আপনারা সেখানে পরামর্শ দেবেন।’

তিনি বলেন, ‘সেখানে জাতীয় পার্টি আছে অন্য দলও আছে। সংসদে এটা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হবে। এটা নিয়ে হতাশ হওয়ার কোনো কারণ নেই। আমরাও চাচ্ছি, দেশের মানুষের কাছে আইনটি যদি গ্রহণযোগ্য না হয়, বাস্তবানুগ না হয় তাহলে তো আইন সুফল দেবে না। সেই সুযোগ সামনে আছে, আপনারা যাবেন।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা এই অধিবেশনে আইনটি পাস করার জন্যই প্রস্তুতি নিচ্ছি। এটা এই সরকারের শেষ অধিবেশন। আশা করছি, এই অধিবেশনেই আইনটি পাস হবে। আমি অপটিমিস্টিক (আশাবাদী)।’

মন্ত্রী বলেন, ‘মন্ত্রিসভায় নীতিগত অনুমোদনের পর এক বছরের বেশি সময় পর সড়ক পরিবহন আইনটি চূড়ান্ত অনুমোদন পায়। কিশোর-কিশোরীরা যারা নিরাপদ সড়কের আন্দোলন করেছিলেন, আমি তাদের স্যালুট করি। তারা আন্দোলনটা করেছিল বলে আজ এই আইনটা যেভাবেই হোক আলোর মুখ দেখছে। আর বেশি কিছু বললাম না।’

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »