বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Dating App

কক্সবাজারের টেকনাফে স্ত্রী হত্যার অভিযোগে স্বামী মো. সোহেল ওরফে রুবেলকে (২৬) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার ভোরে হোয়াইক্যং করাচিপাড়ায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে ২৮ আগস্ট মঙ্গলবার রাতে প্রসূতি গৃহবধূ বেবী আক্তার (২০) পিঠিয়ে আহত করে স্বামী সোহেল। পরে ২৯ আগস্ট বুধবার বিকেলে তিনি মারা যান। টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের কাঞ্জর পাড়ায় ঘটেছে এ ঘটনা। গ্রেফতার সোহেল স্থানীয় আবুল কালামের ছেলে।

টেকনাফ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রনজিৎ বড়ুয়া জানান, ৩ বছর আগে কাঞ্জরপাড়ার মো.আইয়ুব আলী ও মুনিরা বেগমের মেয়ে বেবী আক্তারের সঙ্গে একই এলাকার আবুল কালামের ছেলে মো. সোহেলের বিয়ে হয়। এর মধ্যে সোহেল মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে। তাই সময়ে অসময়ে নানা অজুহাতে বেবীর ওপর নির্যাতন চালাত। গত ৭ মাস আগে বেবী এক ছেলে সন্তানের মা হন। ২৮ আগষ্ট রাত ১টায় সোহেল বাইরে থেকে এসেই খাবার চায়। খাবার দিতে দেরি হওয়ায় সোহেল বেবীকে এলোপাথাড়ি কিল-ঘুষি-লাথি মারতে থাকে। এতে প্রসূতি বেবী তলপেটে আঘাত পেয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়লে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের কাছে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে ২৯ আগষ্ট দুপুরে হ্নীলা উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নেয়ার পথে তিনি মারা যান।

ওসি রনজিৎ আরও জানান, অভিযোগ উঠেছে সোহেল ও তার বাবা বেবীকে চিকিৎসা করাতে গাফিলতি কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। নিহত বেবীর বাবা আইয়ুব আলী ঘটনাটি বিস্তারিত উল্লেখ করে থানায় অভিযোগ করেছে। যা হত্যা মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করা হয়েছে। এতে বেবীর স্বামী সোহেল, শ্বশুর আবুল কালামসহ বেশ কয়েকজনকে আসামি করা হয়েছে। গ্রেফতার সোহেলকে আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে। পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে বলে জানান তিনি।

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »