বার্তাবাংলা ডেস্ক »

চার দশকের মধ্যে সবচেয়ে বড় সামরিক মহড়ার আয়োজন করতে যাচ্ছে রাশিয়া। মঙ্গলবার রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু এ কথা জানান। তিনি জানিয়েছেন, আগামী সেপ্টেম্বরে বড় ধরনের এ মহড়া অনুষ্ঠিত হবে। এ মহড়ায় বিশ্বকে নিজেদের অস্ত্র দেখাবে রাশিয়া।

প্রায় চার দশকের মধ্যে এটি রাশিয়ার সবচেয়ে বড় সামরিক মহড়া। তা ছাড়া স্নায়ুযুদ্ধের পর এত বড় বাহিনী নিয়ে রাশিয়া আর কখনো মহড়া চালায়নি।

সের্গেই শোইগু জানান, মহড়ার নাম দেওয়া হয়েছে ‘ভস্তক-২০১৮’। চলবে ১১ থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। তিনি বলেন, এতে ৩৬ হাজার ট্যাংক, সাঁজোয়া যান এবং পদাতিক বাহিনীর সশস্ত্র যান, নৌবহর এবং এক হাজারের বেশি যুদ্ধবিমান অংশ নেবে। চীন এবং মঙ্গোলিয়ার সামরিক ইউনিটও সেই মহড়ায় যোগ দেবে। রাশিয়ার মধ্য ও পূর্বাঞ্চলের সামরিক অঞ্চলে অনুষ্ঠিত হবে মহড়াটি।

১৯৮১ সালে ন্যাটোর ওপর হামলা চালানোর প্রশিক্ষণ হিসেবে সোভিয়েত বাহিনী যে বিশাল সামরিক মহড়ার আয়োজন করেছিল তার সঙ্গে ভস্তক-২০১৮ মহড়ার তুলনা করেছে শোইগু। রাশিয়ার কেন্দ্রীয় ও পূর্বাঞ্চলীয় সামরিক জেলাগুলোতে অনুশীলনে অংশ নেবেন প্রায় তিন লাখ সেনাসদস্য। তথ্যসূত্র: এএফপি ও রয়টার্স

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »