গরুর কোন অংশ দিয়ে কোন খাবার রান্না করবেন?

মাংস

সারাবছর মাংস খাওয়া হলেও কুরবানির ঈদের কথা আলাদা। কারণ উৎসবের এই দিনে শুধু খাওয়াই নয়, সবার মধ্যে বন্টনও করা হয় কুরবানির মাংস। আবার অন্যান্য সময় গরুর যেকোনো একটি অংশের মাংস কেনা হলেও কুরবানির গরুর সব অংশের মাংসই পাওয়া যায়। একেক অংশের মাংস দিয়ে একেক রকম খাবার তৈরি করলে খেতে বেশি মজা হয়। চলুন জেনে নেই কোন অংশ দিয়ে কোন খাবার তৈরি করলে খেতে বেশি ভালো লাগবে-

রানের মাংস
রানের মাংস দিয়ে সাধারণত বার্গারের পেটি ও টিকিয়া সবচেয়ে ভালো হয়। এবার ঈদে টিকিয়া বানাতে চাইলে আগেই রানের মাংস আলাদা করে রেখে দিন। এছাড়া মাংসের কোর্মা, কোফতা, কোফতা বিরিয়ানি ভালো হয়।

সিনার মাংস
সিনার মাংস গরুর সবচেয়ে আকর্ষণীয় অংশ, এতে চর্বি কম ও কুড়মুড়ে হাড়ের কারণে সবার খুব প্রিয়। এই অংশের মাংস দিয়ে তেহারি, বিরিয়ানি খুব ভালো হয়।

পেটের দুই পাশের অংশ
যেকোনো ধরনের কাবাবের জন্য এই অংশের মাংস সবচেয়ে ভালো। শিক কাবাব, শামি কাবাব ইত্যাদি তৈরি করা যায় এই অংশ দিয়ে। গরুর পেটের দুই পাশের মাংস পাতলা হয়ে থাকে, এটা দিয়ে কিমা ও তৈরি করা হয়।

হাঁটু থেকে পায়ের অংশের মাংস
মাংসের স্যুপ তৈরি , নিহারি তৈরি করতে পারবেন এই অংশ দিয়ে। একটানা মাংস না খেয়ে নিহারি, স্যুপ তৈরি করে খেতে পারেন।

মগজ ও কলিজা
গরুর মগজ ভুনা বা ফ্রাই করে খেতে বেশ মজা। আর কলিজা অনেকে মাংসের সাথে ভুনা করে খায় আবার আলাদা করে ভুনা করে ভাত বা রুটির সাথে খেতে পারেন।