চট্টগ্রামে হরতাল সমর্থকদের শক্ত অবস্থান » Leading News Portal : BartaBangla.com

বার্তাবাংলা ডেস্ক »

ctg somabesবার্তাবাংলা ডেস্ক :: সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটিসহ ২৫ সংগঠনের ডাকা হরতাল সর্বাত্মকভাবে পালিত হচ্ছে বন্দরনগরী চট্টগ্রামে। দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল পুরোপুরি বন্ধ আছে। নগরীর বিভিন্ন এলাকায় গণপরিবহন চলাচল করলেও তুলনামূলকভাবে তা অনেক কম।

হরতালের সমর্থনে গণজাগরণ মঞ্চ, চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন সংগঠনের সংগঠকরা শনিবার ভোর থেকে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় মিছিল-সমাবেশ করছেন। নগরীর প্রবেশপথ সিটি গেইট এলাকায় অবস্থান নিয়েছেন ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটিসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (পশ্চিম) আরেফিন জুয়েল জানান, দূরপাল্লার কোন যানবাহন সকাল থেকে চট্টগ্রাম নগরী ছেড়ে যেতে তারা দেখেননি।

নগরীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, রিক্সা চলাচল স্বাভাবিক থাকলেও সিটিবাস, মিনিবাস, হিউম্যান হলার চলাচল অন্যান্য দিনের তুলনায় একেবারেই কম। হেফাজতের জমায়েত এবং হরতালের সমর্থনে যেসব এলাকায় মিছিল-সমাবেশ চললে সেসব এলাকা দিয়ে যানবাহন চলাচল করছেনা।

শনিবার সকালে নির্ধারিত সময়ের প্রায় তিন ঘণ্টা পর চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে ঢাকাগামী দু’টি ট্রেন চট্টগ্রাম স্টেশন ছেড়ে গেছে।

চট্টগ্রাম স্টেশনের ব্যবস্থাপক শামসুল আলম জানান, কুমিল্লায় রেললাইনের সংস্কার কাজ চলায় নির্ধারিত সময়ে ট্রেন স্টেশন থেকে ছেড়ে যায়নি।

তিনি জানান, চট্টগ্রাম স্টেশন থেকে শনিবার সকাল ১০টায় ঢাকাগামী ‘সুবর্ণ’ ছেড়ে গেছে এবং ‘প্রভাতী’ ছেড়ে গেছে বেলা ১১টায়।

রেলওয়ে সূত্রে ‍জানা গেছে, স্বাভাবিক সময়ে সুবর্ণ সকাল সাতটায় এবং প্রভাতী সাড়ে সাতটায় চট্টগ্রাম স্টেশন ছেড়ে যায়।

এদিকে শুক্রবার রাতে নিরাপত্তাজনিত কারণে চট্টগ্রাম থেকে তিনটি ট্রেনের শিডিউল বাতিল করে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

হরতালের কারণে নগরীতে সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ আছে। বেসরকারী অফিস, শিল্প, কলকারখানা যথারীতি খোলা আছে। তবে উদ্বেগ, উৎকণ্ঠার কারণে অনেকেই কর্মস্থলে যাননি বলে খবর পাওয়া গেছে।

নগরীর নিউমার্কেট এলাকার শনিবার ভোর ৬টা থেকে অবস্থান নেন গণজাগরণ মঞ্চের নেতাকর্মীরা। মিছিল-শ্লোগানে পুরো এলাকা মুখর করে রেখেছেন তারা।

এদিকে হরতালের সমর্থনে ভোর থেকে নগরীর টাইগারপাস, নিউমার্কেটসহ বিভিন্ন এলাকায় মিছিল-সমাবেশ করেছেন কমিউনিস্ট পার্টি ও ছাত্র ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা।

গণজাগরণ মঞ্চের সমন্বয়ক শরিফ চৌহান বলেন, ‘হরতালের সমর্থনে আমরা শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে মাঠে আছি। হেফাজত ইসলামকে আর একচুলও ছাড় দেয়া হবেনা। আজ (শনিবার) বিকেল ৩টায় আমরা আবারও জামালখানে গণজাগরণ মঞ্চে গণঅবস্থান কর্মসূচী পালন করব।’

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »