ঠাঁই পেল বিমানবন্দরে উদ্ধার পাখি ও প্রাণীগুলো

ঠাঁই

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে উদ্ধার হওয়া বন্য পাখি ও প্রাণীগুলোর ঠাঁই হয়েছে গাজীপুরের শ্রীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে।

মঙ্গলবার প্রাণীগুলো সাফারি পার্ক কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করেন বন্যপ্রাণী পরিদর্শক অসিম কুমার মল্লিক।

এর আগে গত সোমবার রাতে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে লাভবার্ড, কাকাতুয়া, ময়ুর, কমন লেমুর, ম্যাকাওসহ বিপন্ন পাখি ও বন্যপ্রাণী উদ্ধার করে বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ ও ঢাকা কাস্টমস হাউস কর্তৃপক্ষ। পরে বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন বিভাগ উদ্ধার হওয়া পাখি ও প্রাণীগুলোকে সাফারি পার্ক কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করে।

পার্কের বন্যপ্রাণী পরিদর্শক আনিছুর রহমান জানান, উদ্ধারকৃত প্রাণীগুলোর মধ্যে ১২টি কমন মার মুসেট মানকি, ২০টি কমন লেমুর, ১৫টি ম্যাকাও, ৮টি ময়ুর, ৩০টি আফ্রিকান গ্রে প্যারেট, ৪টি কাকাতুয়া ও লাভ বার্ড রয়েছে ১৫০টি। এর মধ্যে ১টি গ্রে প্যারেট মৃত ছিল। পাখিগুলোর মধ্যে কয়েকটি লাভ বার্ড এরই মধ্যে মারা গেছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, দীর্ঘপথ অতিক্রম করে বাংলাদেশে আসা প্রাণীগুলো শারীরিক ভাবে অনেকটা দুর্বল। সাফারি পার্কে হস্তান্তর করার পর প্রাণীগুলোকে নির্দিষ্ট কোরেন্টাইনে (পৃথক স্থান) রাখা হয়েছে। প্রাণীগুলোর আনুমানিক মূল্য প্রায় অর্ধকোটি টাকা।