বার্তাবাংলা ডেস্ক »

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ২৮টিরও বেশি মাদক মামলার আসামি মাদক ব্যবসায়ী আবদুস ছালাম ঠসা ওরফে ঠসা ছালাম (৪৮) নিহত হয়েছেন। সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের সাতগিরি জামাল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তুল, একটি ম্যাগজিন, ৩ রাউন্ড গুলি, ২০ বোতল ফেনসিডিল ও ১০ কেজি গাঁজা জব্দ করা হয়েছে। এ ছাড়া এ ঘটনায় র‌্যাবেরদুইজন সদস্য আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

নিহত আবদুস ছালাম ঠসা সাতগিরি গ্রামের মৃত সবুর আলীর ছেলে।

র‌্যাব-১৩ এর গাইবান্ধা ক্যাম্পের সহকারী কমান্ডার হাবিবুর রহমান জানান, সোমবার গভীর রাতে আব্দুস সালাম ঠসাসহ ৪-৫ জন মাদক ব্যবসায়ী সাতগিরি জামাল গ্রামে মাদক কেনাবেচা করছেন- এ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই গ্রামে অভিযানে যায় র‌্যাব সদস্যরা। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছুড়লে দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলিতে মাদক ব্যবসায়ী আবদুস ছালাম ঠসা গুলিবিদ্ধ ও র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হন। এ সময় অন্য মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যান। পরে গুলিবিদ্ধ আব্দুস সালাম ঠসাকে উদ্ধার করে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ময়নাতদন্ত শেষে তার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে জানান এই র‌্যাব কর্মকর্তা।

সুন্দরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম আবদুস সোবহান বলেন, আবদুস ছালাম ঠসা দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসা করে আসছিলেন। তার বিরুদ্ধে সুন্দরগঞ্জ থানাসহ বিভিন্ন থানায় ২৮টিরও বেশি মাদকের মামলা রয়েছে

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »