বার্তাবাংলা ডেস্ক »

রাজধানীর ঢাকার জিগাতলায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর নৃশংস হামলার প্রতিবাদ এবং নিরাপদ সড়কের দাবিতে বিক্ষোভ ও পূর্বঘোষিত ছাত্র ধর্মঘট পালন করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষার্থীরা।

রোববার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে সকল প্রকার ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে কয়েক শতাধিক শিক্ষার্থীর অংশ গ্রহণে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থান প্রদক্ষিণ করে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক হয়ে যাত্রা স্থানে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে একটি সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে ধর্মঘটের সমর্থনে শিক্ষার্থীরা ভোর পৌনে পাঁচটায় বিশমাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন ডিপোর সামনে অবস্থান নেয়। শিক্ষার্থীদের বাধায় ঢাকার উদ্দেশ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো বাস ছেড়ে যায়নি। ধর্মঘট সফল করতে অধিকাংশ বিভাগের কয়েকটি ব্যাচের শিক্ষার্থীরা ক্লাস না করে বিক্ষোভে অংশ নেয়। কয়েকটি চূড়ান্ত পরীক্ষা ও টিউটরিয়াল পরীক্ষা স্থগিত করা হয়।

এ সময় উপস্থিত শিক্ষার্থীরা বলেন, আমাদের এ শান্তিপূর্ণ্য আন্দোলন চলবে, কেউ বাধা দিলে আমরা রাস্তায় নামতে বাধ্য হবো। এদিকে একই দাবিতে সন্ধ্যা ৭টায় শিক্ষার্থীদের আয়োজনে ক্যাম্পাসে মশাল মিছিল হওয়ার কথা রয়েছে।

সমাবেশে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি নজির আহমেদ জয়, ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি সুস্মিতা মরিয়ম, সাধারণ সম্পাদক মো. দিদারসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকাংশ বিভাগের শিক্ষার্থীরা ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন কারণে অনুষদগুলোতে শিক্ষা কার্যক্রম স্থগিত ছিল। তবে কিছু কিছু বিভাগের পূর্ব নির্ধারিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং প্রশাসনিক কার্যক্রম অব্যাহত ছিল। আন্দোলনে সংহতি জানিয়ে ‘শিক্ষক মঞ্চ’-এর সমন্বয়ক রায়হান রাইন, দর্শন বিভাগের অধ্যাপক এ এস এম আনোয়ারুল্লাহ ভূঁইয়া, ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক পারভীন জলি, বাংলা বিভাগের অধ্যাপক শামীমা সুলতানা মিছিলে অংশ নেন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »