বার্তাবাংলা ডেস্ক »

টানা তিন কার্যদিবস বড় উত্থানের পর রোববার দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্য সূচকের বড় পতন হয়েছে। সেই সঙ্গে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ।

মূল্য সূচক ও লেনদেনের পাশাপাশি এদিন বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দামও কমেছে। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ১১৫ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে কমেছে ১৯৪টির দাম। আর ২৫টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের দাম কমায় ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৪২ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৩৫৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দু’টি মূল্য সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ১২ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৮৮৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আর ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক ৯ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ২৫২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

বাজারে লেনদেন হয়েছে ৬৫৯ কোটি ২২ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয়েছে ৭৬৪ কোটি এক লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন কমেছে ১০৪ কোটি ৭৯ লাখ টাকা।

এদিন টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে ফার কেমিক্যালের শেয়ার। কোম্পানিটির ২২ কোটি ২৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশনের ২০ কোটি ৮০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ১৯ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে সায়হাম টেক্সটাইল।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, ফু-ওয়াং ফুড, ড্রাগন সোয়েটার, সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ, বিবিএস কেবলস, আলিফ মেনুফ্যাকচারিং এবং ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্য সূচক সিএসসিএক্স ৬১ পয়েন্ট কমে ৯ হাজার ৯৮১ পয়েন্টে অবস্থান করছে। লেনদেন হয়েছে ২৩ কোটি এক লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২৪১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৭৮টির দাম বেড়েছে। দাম কমেছে ১৪৯টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ১৪টির।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »