বার্তাবাংলা ডেস্ক »

সড়ক দুর্ঘটনায় প্রস্তাবিত আইন শিথিল করার দাবিতে জ্বালানি তেল উত্তোলন ও বিপণন বন্ধ রেখে ২৪ ঘণ্টার কর্মবিরতি পালন করছেন ট্যাংক-লরি শ্রমিকরা।

খুলনা বিভাগীয় ট্যাংক-লরি মালিক-শ্রমিকদের চারটি সংগঠন রোববার সকাল ৮টা থেকে ২৪ ঘণ্টার এ কর্মবিরতি পালন করছে।

সংগঠনগুলো হচ্ছে- বাংলাদেশ তেল পরিবেশক সমিতি, বাংলাদেশ ট্যাংক-লরি ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন খুলনা বিভাগীয় কমিটি, খুলনা বিভাগীয় ট্যাংক-লরি শ্রমিক ইউনিয়ন ও পদ্মা মেঘনা যমুনা শ্রমিক কল্যাণ সমিতি।

রোববার সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া এ কর্মবিরতি চলবে আগামীকাল সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত। কর্মবিরতির কারণে খুলনার পদ্মা, মেঘনা ও যমুনা ডিপো থেকে জ্বালানি তেল উত্তোলন এবং ট্যাংক-লরি চলাচল বন্ধ রয়েছে।

খুলনা বিভাগীয় ট্যাংক-লরি শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আলী আজিম বলেন, সড়কে চালকরা ইচ্ছাকৃত দুর্ঘটনা ঘটায় না। দুর্ঘটনার জন্য অধিকাংশ রাস্তাঘাটের বেহাল দশা ও ভাঙ্গাচোরা সড়ক দায়ী। পথচারীর অসতর্কতার জন্যও দুর্ঘটনা ঘটে। এর জন্য পথচারীসহ দেশের জনগণকে আরো সচেতন হতে হবে। প্রস্তাবিত আইন এখনও শিথিল করা সম্ভব। কালক্ষেপণ করলে তেল সেক্টরে চরম অসন্তোষ সৃষ্টি হবে।

তিনি জানান, নগরীর খালিশপুরের ট্যাংক-লরি ভবনের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ করছে মালিক সমিতির নেতারা। সামাবেশ থেকে আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করা হতে পারে।

উল্লেখ্য, গত শনিবারের যৌথসভায় প্রস্তাবিত আইনকে একপেশে মন্তব্য করে মালিক সমিতির নেতারা ২৪ ঘণ্টার এ ধর্মঘটের ডাক দেন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »