ভিড় বেড়েছে ল্যাপটপ মেলায়

গণপরিবহন বন্ধ থাকায় জরুরি প্রয়োজন ছাড়া রাস্তায় বের হচ্ছেন না রাজধানীবাসী। ফলে আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসিতে) চলা মেলায় সকালে দর্শনার্থী ছিল হাতেগোনা। তবে বিকেলটা মুখরিত।

শুক্রবার (৩ জুলাই) বিকেল হতেই ল্যাপটপ মেলায় দর্শনার্থী ও ক্রেতাদের ভিড় বাড়তে শুরু করে। দর্শনার্থীরা মেলা ঘুরে ঘুরে দেখছেন ও কিনছেন পছন্দের ল্যাপটপ, নোটপ্যাডসহ রকমমারি ডিভাইস।

পছন্দ এবং দামের সঙ্গে মিল হওয়ায় লেনেভোর ল্যাপটপ কিনেছেন রাজধানীর বেগুনবাড়ির বাসিন্দা রেজয়ানুল হক রেজা।

তিনি জানান, ২৯ হাজার টাকায় কেনা ল্যাপটপটির সঙ্গে গিফটও পেয়েছি। রাস্তাঘাট ফাঁকা, রাজধানীতে মানুষের চলাচল কম। ভিড় কম থাকায় স্টলে কর্মরতরা দর্শনার্থীদের বেশ ভালো মূল্যায়ন করছে।

স্টল সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, বিকেলে ভিড়ের পাশাপাশি বিক্রিও বেড়েছে। সন্ধ্যার পর দর্শক সমাগম আরও বাড়বে বলে আশা প্রকাশ করে তারা।

মেলায় বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ল্যাপটপে মূল্যছাড়, উপহার এবং স্ক্র্যাচ অ্যান্ড উইনে পুরস্কার জেতার সুযোগ দিচ্ছে। এবারে মেলার স্পন্সর এফোরটেক। মেলাতে প্রতিষ্ঠানটির বিভিন্ন পণ্য পাওয়া যাচ্ছে।

মেলায় বিশ্বখ্যাত কম্পিউটার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এসার, আসুস, ডেল, এইচপি, লেনেভো ছাড়াও অংশ নিচ্ছে আমেরিকান ব্র্যান্ড আইলাইফ। দেশীয় একমাত্র কম্পিউটার নির্মাতা ব্র্যান্ড ওয়ালটনও রয়েছে মেলায়।

পরিবেশক প্রতিষ্ঠান হিসেবে অংশ নিয়েছে স্টার টেক, গ্লোবাল ব্র্যান্ড ও স্মার্ট টেকনোলজিস। মেলায় অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলো সর্বশেষ প্রযুক্তির পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রির সঙ্গে মূল্যছাড় ও উপহার দিচ্ছে। রয়েছে স্ক্র্যাচ কার্ড, র‌্যাফেল ড্রতে উপহার জেতার সুযোগ।

মেলায় মোট ছয়টি প্যাভিলিয়ন, ১৪টি মিনি প্যাভিলিয়ন ও ২৭টি স্টল রয়েছে। এ ছাড়াও রয়েছে মিডিয়া ও অরগানাইজার বুথ।
মেলার সব আপডেট ও খবর মেলার অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজ ও ইভেন্ট পেইজে পাওয়া যাচ্ছে।

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা চলবে। মেলায় প্রবেশ মূল্য ৩০ টাকা। তবে স্কুলের শিক্ষার্থীরা ইউনিফর্ম পরে কিংবা পরিচয়পত্র প্রদর্শন করে এবং প্রতিবন্ধীরা বিনামূল্যে মেলায় প্রবেশের সুযোগ পাবেন।