বার্তাবাংলা ডেস্ক »

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল প্রসিকিউশন টিমের অন্যতম সদস্য প্রসিকিউটর রানা দাস গুপ্ত বলেছেন, সংসদ সদস্যরা সংখ্যালঘুদের ওপর অত্যাচার করে এমন ৫৩ জনের তালিকা করেছি। এর মধ্যে কাটসাট করে ২৩ জন পেয়েছি। তবে, কোনো সংসদ সদস্যের নাম তিনি উল্লেখ করেননি।

বাংলাদেশ আইনজীবী ঐক্য পরিষদ কর্তৃক আয়োজিত সম্মেলন ২০১৮ এর আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

 

তিনি বলেন, দেশে উন্নয়ন হয়েছে, আমরা যদি চলে যাই তাহলে উন্নয়নে কি লাভ। আমরা ভোট দিতে চাই, নাগরিক হিসেবে ভোটের হিসাবও চাই।

আইনজীবী রানা দাস বলেন, দেশের কোথাও সংখ্যালঘু নির্যাতিত হলে মামলা হয়, এরপর সমঝোতাকারী ও হামলাকারী আর কিছু রাজনৈতিক নেতা সমঝোতার কথা বলে। নির্যাতিতরা যখন দেখে হামলাকারী সমঝোতাকারীরা একত্রে বসে কথা বলছে তখন সাক্ষীরা চুপ হয়ে যায়। ঘটনার ৬ মাস পর পুলিশ তদন্ত প্রতিবেদন দেয়, ঘটনা সত্য। কিন্তু, সাক্ষী পাওয়া যায়নি। এটা দায় মুক্তির সংস্কৃতি।

দায় মুক্তির সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজকে রাজনীতিতে যেন অপরাজনীতি না হয় এজন্য তো আমাদেরই লড়তে হবে।

অ্যাড. অমিত দাস গুপ্তের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেস বিভাস চন্দ্র বিশ্বাস, বক্তব্য দেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. শম. রেজাউল করিম, পরিমল গুহ (পিসিগুহ), অপূব র্কুমার ভট্টাচার্জ ও সুনীল রঞ্জন বিশ্বাস প্রমুখ।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »