বার্তাবাংলা ডেস্ক »

রান্নার কাজে আদা বেশ প্রয়োজনীয় একটি উপাদান। বিশেষ করে আমিষজাতীয় খাবারে প্রয়োজন পড়ে আদার। আদা চা-ও অনেকের কাছে প্রিয় পানীয়। আদার রয়েছে প্রচুর উপকারিতা। শুধু তাই নয়, চুলের যত্নেও আদা উপকারী। চুলের সৌন্দর্য বাড়ানোর পাশাপাশি স্কাল্পের স্বাস্থ্যের উন্নতিতে আদা বেশ কার্যকরী।

 

চুল যদি মাত্রারিক্ত পড়ে তাহলে চুলের পরিচর্যায় আজ থেকেই কাজে লাগাতে শুরু করুন আদাকে। চুল পড়া তো কমবেই, সেইসঙ্গে চুলের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পাবে চোখে পরার মতো। আদায় উপস্থিত ম্যাগনেসিয়াম, পটাশিয়াম, ফসফরাস এবং আরও নানাবিধ উপকারী উপাদান চুলে পুষ্টির ঘাটতি দূর করে। সেজন্য ১ চামচ আদার পেস্ট নিয়ে তার সঙ্গে ১ চামচ অলিভ অয়েল বা নারিকেল তেল মিশিয়ে সেই মিশ্রণটি স্কাল্পে লাগিয়ে ধীরে ধীরে মাসাজ করতে হবে। এরপর ৩০ মিনিট অপেক্ষা করে ভালো করে ধুয়ে ফেলতে হবে। সপ্তাহে দুবার এভাবে চুলের পরিচর্যা করলেই মিলবে উপকার।

আদায় রয়েছে প্রচুর মাত্রায় অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল প্রপাটিজ, যা স্কাল্পে সংক্রমণের মাত্রা কমানের পাশাপাশি হারিয়ে যাওয়া আর্দ্রতাকেও ফিরিয়ে আনে। ফলে খুশকির সমস্যা কমতে সময় লাগে না। সেইসঙ্গে স্কাল্পে কোনো ধরনের সংক্রমণ হওয়ার আশঙ্কাও হ্রাস পায়। ২ চামচ আদার পেস্ট নিয়ে তাতে ৩ চামচ তিলের তেল এবং হাফ চামচ লেবুর রস মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে। এরপর সেই পেস্টটি ভালো করে স্কাল্পে এবং চুলে লাগিয়ে ৩০ অপেক্ষা করতে হবে। এরপর ভালো করে ধুয়ে ফেলতে হবে। এটিও সপ্তাহে দুবার ব্যবহার করতে পারেন। খুশকি কমবেই।

চুলের রুক্ষতা দূর করতে সপ্তাহে অন্তত ২-৩ তিন আদার পেস্ট চুলে লাগাতে শুরু করুন। এমনটা করলে দেখবেন স্কাল্প এবং চুলের আর্দ্রতা বাড়তে শুরু করেছে। ফলে চুল পড়ার হার তো কমবেই, সেইসঙ্গে চুলের সৌন্দর্যও বৃদ্ধি পাবে চোখে পরার মতো।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »