বার্তাবাংলা ডেস্ক »

বাংলাদেশের নাট্য আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃৎ আবদুল্লাহ আল-মামুনের ৭৬তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে অনুষ্ঠান আয়োজন করেছে নাট্যসংগঠন থিয়েটার (নাটক সরণি)। আগামী ১৩ জুলাই, শুক্রবার বিকেল ৪টায় সেগুনবাগিচাস্থ জাতীয় নাট্যশালার সেমিনার কক্ষে (সাত তলা) বিকেল ৪টায় থাকছে আলোচনা পর্ব।

তার সৃষ্টির বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনার সূত্রপাত করবেন নাট্যসারথি আতাউর রহমান, অভিনয়শিল্পী সারাহ বেগম কবরী ও সুবর্ণা মুস্তাফা। স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠানটি সবার জন্য উন্মুক্ত। সন্ধ্যা ৭টায় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে মঞ্চস্থ হবে আবদুল্লাহ আল মামুন রচিত ও নির্দেশিত নাটক ‘মেরাজ ফকিরের মা’।

থিয়েটার নাট্যদলের সভাপতি ফেরদৌসী মজুমদার বলেন, ‘জন্মদিনে আমরা তাকে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করব স্মৃতিচারণ এবং তার নাটকে অভিনয় করে।‘ আব্দুল্লাহ আল-মামুন একাধারে নাট্যকার, অভিনেতা ও চলচ্চিত্র নির্মাতা হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেছেন। নাট্যসংগঠন ‘থিয়েটার’ এর প্রতিষ্ঠাতাদের অন্যতম তিনি। এই দলের জন্য ১৮টি মঞ্চনাটক লিখেছেন, নির্দেশনা দিয়েছেন ২৩টি মঞ্চনাটক।

অসংখ্য পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন আব্দুল্লাহ আল-মামুন। পেয়েছেন বাংলা একাডেমি পুরস্কার, প্রথম জাতীয় টেলিভিশন পুরস্কার। শ্রেষ্ঠ পরিচালক হিসেবে পেয়েছেন দু’বার পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। তিনি ২০০০ সালে একুশে পদক পান। ২০০৮ সালের ২১ আগস্ট ঢাকার বারডেম হাসপাতালে ৬৬ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন আব্দুল্লাহ আল-মামুন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »