বার্তাবাংলা ডেস্ক »

সব দাঁত আগেভাগে উঠলেও আমাদের সবারই আক্কেল দাঁত ওঠে কিছুটা দেরি করেই। আর যখন ওঠে তখন বেশ জানান দিয়েই ওঠে। অর্থাৎ আক্কেল দাঁতের ব্যথায় ভুগতে হয় ভুক্তভুগীকে। যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে অনেকে আবার দাঁতের ডাক্তারের কাছে গিয়ে মাড়ি কাটিয়ে দাঁত ওঠার ব্যবস্থা করে দেন। কিন্তু সে আরেক সমস্যা। তবে ঘরোয়াভাবেই প্রতিকার করতে পারেন আক্কেল দাঁতের ব্যথার।

শসা-আলু এবং বাঁধাকপি আক্কেল দাঁতের যন্ত্রণা কমাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। এক্ষেত্রে ফ্রিজে রাখা শসা, আলু অথবা বাঁধাকপি অল্প পরিমাণে কেটে নিয়ে আক্কেল দাঁতের উপরে লাগাতে হবে। তাহলেই মিলবে উপকার।

দাঁতের যন্ত্রণা কমাতে গোলমরিচ দারুণ কাজে আসে। পরিমাণ মতো গোলমরিচ নিয়ে তার সঙ্গে পানি মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে। তারপর সেই পেস্টটি তুলোর সাহায্যে যেখানে যন্ত্রণা হচ্ছে, সেখানে লাগিয়ে রাখতে হবে। এমনটা করলেই দেখবেন কিছু সময়েই যন্ত্রণা কমে গেছে।

তুলোতে অল্প করে টি-ট্রি অয়েল নিয়ে দাঁতের উপর ৫ মিনিট লাগিয়ে রাখলেই যন্ত্রণা কমে যাবে। কারণ এতে উপস্থিত অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটারি উপাদান নিমেষে প্রদাহ কমিয়ে ফেলে। ফলে কষ্ট ধীরে ধীরে কমতে শুরু করে।

এবার থেকে যখনই আক্কেল দাঁতের যন্ত্রণা শুরু হবে, তখনই এক কোয়া রসুন নিয়ে চিবতে শুরু করে দেবেন। দেখবেন নিমেষে কষ্ট কমে যাবে। কারণ এতে উপস্থিত অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান যে কোনো ধরনের প্রদাহ কমাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। সেইসঙ্গে পুনরায় যাতে এমন কষ্ট না হয় সেদিকেও খেয়াল রাখে।

রসুনের দুটি কোয়া থেঁতো করে তার সঙ্গে অল্প করে লবণ মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে ফেলুন। এবার সেই পেস্টটা ভালো করে আক্কেল দাঁতের উপর লাগিয়ে দিন। আর যদি এমনটা করতে না পারেন তাহলে পেস্টটি ব্রাশে লাগিয়ে দাঁত মেজে নিন। দেখবেন যন্ত্রণা কমে যাবে।

হলুদের অ্যান্টিসেপটিক এবং অ্যান্টি-ব্য়াকটেরিয়াস প্রপাটিজ নিমেষে আক্কেল দাঁতের যন্ত্রণা কমাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। এককাপ পানিতে ৫ গ্রাম হলুদ গুঁড়া, ২াট লবঙ্গ এবং ২াট শুকনো পেয়ারা পাতা দিয়ে ফুটিয়ে নিন। এরপর সেই পানি দিয়ে ভালো করে কুলকুচি করে নিন। এইভাবে কয়েকবার কুলকুচি করলেই যন্ত্রণা কমে যাবে।

আক্কেল দাঁত ব্যাথাকে কাবু করতে পেঁয়াজ দারুণ কাজে আসে। এক্ষেত্রে অল্প করে পেঁয়াজ চিবিয়ে নিতে পারেন অথবা আক্কেল দাঁতের উপর রেথে দিলেও দারুণ উপকার মেলে।

পেয়ারা পাতায় উপস্থিত অ্যানালজেসিকস নামে একটি উপাদান চোখের পলকে যন্ত্রণা তো কমায়ই, সেই সঙ্গে দাঁতের ফাঁকে জমে থাকা ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াদেরও মেরে ফেলে। তাই আক্কেল দাঁতের ব্যথায় পেয়ারা পাতা ধুয়ে চিবিয়ে খান।

অাক্কেল দাঁতের ব্যথায় এবার থেকে যখন আক্কেল গুড়ুম হওয়ার জোগার হবে, তখন অল্প করে লবঙ্গ নিয়ে দাঁতের ফাঁকে রেখে দেবেন। নিমিষেই ব্যথা দূর হবে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »