বার্তাবাংলা ডেস্ক »

সঠিক্য খাদ্যাভ্যাস ও পরিচর্যা না থাকলে আমাদের ত্বকে দেখা দিতে পারে পানিশূন্যতা। এর ফলে ত্বক শুষ্ক ও খসখসে হয়ে পড়ে। ত্বকের স্বাভাবিক সৌন্দর্য তো নষ্ট হয়ই, পাশাপাশি দেখা দিতে পারে ত্বকের নানা অসুখও। তাই ত্বকের পানিশূন্যতা রোধে মেনে চলতে হবে কিছু উপায়। চলুন জেনে নেয়া যাক-

নিয়মিত ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। সারাবছর স্কিন ময়েশ্চারাইজড রাখা সমানভাবে জরুরি। কেননা একটি ভালো ময়েশ্চারাইজার ত্বকের ভেতরে পানি সিল করে রাখে। ফলে একদিকে যেমন পানির লেভেল ঠিক থাকে তেমনি স্কিন হাইড্রেটেড থাকার ফলে সেবাম নিঃসরণ কন্ট্রোলে থাকে। গ্রীষ্মকালে ওয়াটার বেইজড ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারের অভ্যাস গড়ে তুলুন।

প্রতিদিন সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। দীর্ঘক্ষণ সূর্যের আলোতে থাকার ফলে ত্বকের উপরিভাগের পানি বাষ্পায়িত হয়ে যায় ফলে সানবার্ন ত্বকে ময়েশ্চারাইজেশন বেশি জরুরি হয়ে পড়ে। এ সমস্যা থেকে বাঁচতে নিয়মিত একটি ব্রড স্পেকট্রাম সানব্লক ব্যবহারের অভ্যাস গড়ে তুলুন।

ভিটামিন বি সমৃদ্ধ খাদ্যগ্রহণ করুন। ভিটামিন বি৩ ও বি৫ ডিহাইড্রেশন ও রিংকেলসসের বিরুদ্ধে অনেক ভালো কাজ করে। মুরগির বুকের মাংস, যকৃৎ, টুনা মাছ বা মটরশুঁটি থেকে ভিটামিন বি৩ এর অভাব পূরণ করা সম্ভব। অন্যদিকে মুরগীর যকৃতের পাশাপাশি ভুট্টা, ফুলকপি এমনকি দই হতে পারে ভিটামিন বি৫ এর আদর্শ উৎস।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »