বার্তাবাংলা ডেস্ক »

বেপরোয়া যানবাহনের চাপায় হাত-পা হারানো মানুষের মৃত্যুর তালিকা দীর্ঘ হচ্ছে। এবার মারা গেলেন রাজধানীর বনানীর চেয়ারম্যানবাড়ি এলাকায় বাসের চাপায় পা হারানো রোজিনা আক্তার।

আজ রোববার সকাল ৭টা ২০ মিনিটে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রোজিনার মৃত্যু হয়। তাঁর মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) মো. বাচ্চু মিয়া।

২০ এপ্রিল রাতে বিআরটিসির দোতলা বাসের চাপায় ডান পা হারান গৃহকর্মী রোজিনা। তাঁকে প্রথমে জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানে (পঙ্গু হাসপাতাল) ভর্তি করা হয়। পরে নেওয়া হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে আজ নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) তাঁর মৃত্যু হয়।

১৬ এপ্রিল রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজেই মারা যান দুই বাসের প্রতিযোগিতায় ডান হাত হারানো রাজীব হোসেন। ৩ এপ্রিল সার্ক ফোয়ারার কাছে দুর্ঘটনায় রাজীবের হাত ছিঁড়ে যায়। শমরিতা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর রাজীবকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে স্থানান্তর করা হয়। সাময়িক উন্নতির পর তাঁর মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ শুরু হয়। রাজীবের মস্তিষ্ক অসাড় হয়ে যায়। সেই থেকে আর জ্ঞান ফেরেনি তাঁর।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »