বার্তাবাংলা ডেস্ক »

ত্বকের ত্রুটি সারিয়ে তুলতে নিয়মিত টি-ট্রি সমৃদ্ধ প্রসাধনী দিয়ে মুখ ও হাত ধোয়ার অভ্যাস করুন।

কারণ এই উপাদান ত্বকের প্রাকৃতিক তৈলাক্ত পদার্থ ‘সিবাম’ উৎপাদন নিয়মিত করে। ফলে ত্বকের কালিমা দূর হয়।

প্রাকৃতিক পন্থায় ব্রণ নিরাময়ের কয়েকটি পন্থা দিয়েছেন ‘পল পেন্ডার্স ইন্ডিয়া’র পরিচালক সারগাম ধাওয়ান এবং ‘কামা আয়ূর্ভেদা’র আয়ুর্বেদিক বিশেষজ্ঞ শারাদ কুলকার্নি।

* ব্যাক্টেরিয়া রোধে প্রতিদিন প্রাকৃতিক উপাদান সমৃদ্ধ জীবাণুরোধী এবং টি-ট্রি সমৃদ্ধ পরিষ্কারক দিয়ে মুখ ও হাত ধোয়ার অভ্যাস করতে হবে। এসেনশিয়াল টি-ট্রি তেল সমৃদ্ধ প্রাকৃতিক পরিষ্কারকগুলোর মোলায়েম ফেনা যে কোনো ধরনের ত্বকের ময়লা কার্যকর ভাবে দূর করে।

* ত্বক আর্দ্র রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। জুনিপার ও ইয়ারো কিংবা অ্যালো ভেরা ও ল্যাভেন্ডার সমৃদ্ধ ময়েশ্চারাইজার সবচেয়ে ভালো। পাশাপাশি এতে থাকবে ভিটামিন ই, যা জলকণা বা ময়েশ্চারাইজার ধরে রেখে ত্বক শুষ্ক হওয়া থেকে রক্ষা করে।

* আয়ুর্বেদিক ওষুধ হতে পারে সবচেয়ে কার্যকর পদক্ষেপ। প্রতিদিন করলার রস পান করার অভ্যাস করতে পারলে খুব ভালো। এটা রক্ত পরিশোধক হিসেবে কাজ করে। যা জীবাণুরোধী এবং শরীরের বিষাক্ত পদার্থ বের করে দেয়। ফলে ত্বক হয় ভেতর থেকে পরিষ্কার।

* সকালটা শুরু করুন প্রচুর পানি পানের মাধ্যমে। এটা শরীর থেকে দূষিত পদার্থ বের করে দিতে সাহায্য করবে। শরীরের বিষাক্ত পদার্থগুলো অন্ত্র, ঘাম ও প্রস্রাবের মাধ্যমে বের হয়ে যায়। যখনই শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর হবে তখনই পাওয়া যাবে দীপ্তিময় ত্বক।

পানি ছাড়াও তাজা ফলের রসও প্রাকৃতিক তরল হিসেবে দারুণ উপকারী।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »