বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Dating App

ঠাকুরগাঁওবাসীর কাছে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নৌকায় ভোট দিন, সোনার বাংলাদেশ উপহার দেব। তিনি ঠাকুরগাঁওবাসীকে ওয়াদা করান। বলেন, আপনারা ওয়াদা করেন, হাত তুলে ওয়াদা করেন- নৌকা মার্কায় ভোট দেবেন। এ সময় জনসভা মাঠে থাকা মানুষ হাত তুলে ওয়াদা করেন। এর আগে সিলেট, রাজশাহী ও বরিশালেও নৌকায় ভোট চেয়ে জনগণকে ওয়াদা করান তিনি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও জেলা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের বড় মাঠে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, আগামী ডিসেম্বর যে নির্বাচন হবে সেই নির্বাচনে নৌকায় ভোট চাই। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার জন্যে আমি আপনাদের কাছে নৌকা মার্কায় ভোট চাই। নোকা মার্কা দেবে আপনাদের শান্তি, জীবনমানের উন্নতি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা দেশের উন্নয়ন চাই। বিএনপি আসা মানে দেশ ধ্বংস হওয়া, আগুনে পুড়িয়ে মানুষ মারা, জঙ্গিবাদ, লুটপাট, দুর্নীতি করা। আওয়ামী লীগ আসা মানে উন্নয়ন, শান্তি, দেশের উন্নতি, কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা।

তিনি বলেন, ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়া, মানুষের উন্নত জীবন, গ্রামের মানুষ থেকে শুরু করে প্রত্যেকটা মানুষ যাতে শান্তিতে থাকে সেটাই আমাদের লক্ষ্য। সরকারের ধারাবাহিকতা আছে বলে দেশের উন্নয়ন হচ্ছে।

এই জনসভায় ঠাকুরগাঁওবাসীর জন্য তিনি আরও উন্নয়ন করে দেয়ার ওয়াদা করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকে যে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলাম সেগুলোর কাজ চলবে। উন্নয়ন নিয়ে ব্যাপকভাবে কাজ করে যাচ্ছি। আমরা চাই আমাদের দেশ এগিয়ে যাক, দেশ উন্নত হোক। বিশ্বসভায় বাংলাদেশ মর্যাদার আসনে চলুক সেটাই আমরা চাই।

শেখ হাসিনা বলেন, ঠাকুরগাঁও অঞ্চলের ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়ার জন্যে যা যা উন্নয়ন দরকার তা আমরা করেছি। তারপরেও যেসব উপজেলায় সরকারি স্কুল-কলেজ নেই সেখানে আমরা প্রতিষ্ঠান করে দেব। ঠাকুরগাঁও জেলায় যেন একটি বিশ্ববিদ্যালয় হয় সে ব্যবস্থা আমরা করব।

তিনি বলেন, আমি জানি এই জেলা খাদ্য উদ্বৃত্তের, এই জেলায় কর্মসংস্থানের জন্য এখানে খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণের অঞ্চল যেন গড়ে ওঠে তার ব্যবস্থা আমরা করব। বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল করব।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ঠাকুরগাঁও, পীরগঞ্জ, রানী শৈঙ্কল, হরিপুর পাকা রাস্তা যাতে প্রশস্ত হয় তার ব্যবস্থা করে দেব। ঠাকুরগাঁও যাতে আইটি পার্ক হয় তার ব্যবস্থা করে দেব। কর্মচারী নারীদের জন্য হোস্টেল করে দেব, যাতে তারা থাকতে পারে। ঠাকুরগাঁও পৌরসভার যত ড্রেন, রাস্তা সেগুলোর উন্নত করার ব্যবস্থা করব।

তিনি বলেন, ঠাকুরগাঁওয়ের মানুষ যাতে বিশুদ্ধ পানি পায় তার জন্য ওভারহেড ওয়াটার ট্যাঙ্ক করে দেব। প্রত্যেক উপজেলায় একটি মসজিদ ও ইসলামিক সেন্টার করে দেব। ইসলাম ধর্মের নামে কেউ সন্ত্রসী কর্মকাণ্ড করুক তা আমরা চাই না।

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »