বার্তাবাংলা ডেস্ক »

ইউএস-বাংলার উড়োজাহাজ দুর্ঘটনায় নিহত ব্যক্তিদের মরদেহ শনাক্ত করার কাজ শুরু হয়েছে। আজ শনিবার সকালে নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন ইউনিভার্সিটির টিচিং হাসপাতালে এ পক্রিয়া শুরু হয়।

গতকাল শুক্রবার কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে জানানো হয়, দুর্ঘটনায় যেসব বাংলাদেশিকে শনাক্ত করা সম্ভব হবে, তাঁদের মরদেহ আগামী মঙ্গলবার আনা হবে। গতকালই সমস্ত মরদেহের ময়নাতদন্ত শেষ হয়।

আজ বাংলাদেশ দূতাবাস ও ইউএস-বাংলার কর্মকর্তারা শনাক্ত করার কাজটি তদারকি করছেন। আছেন নিহত ব্যক্তিদের আত্মীয়-স্বজনেরা। মৃতদেহ শনাক্ত করার কাজে নেতৃত্ব দিচ্ছেন ত্রিভুবন ইউনিভার্সিটির ফরেনসিক বিভাগের প্রমোদ প্রমোদ শ্রেষ্ঠা।

আজ খালি চোখে দেখে স্বজনেরা নিজ নিজ আপনজনের মরদেহ শনাক্ত করবেন। শনাক্ত করা এসব মৃতদেহই শুধু মঙ্গলবার দেশে পাঠানো হবে। যেসব মরদেহ শনাক্ত করা সম্ভব হবে না, এগুলোর ডিএনএ প্রোফাইলিং করা হবে। প্রোফাইলিংয়ের জন্য এসব মৃতদেহের দাঁত, চুল, নখ বা পোশাকের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।
গতকালই বাংলাদেশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে কাল রোববার ঢাকার সিআইডির ডিএনএ ল্যাবে গিয়ে নিহত ব্যক্তিদের স্বজনদের যোগাযোগের জন্য অনুরোধ জানানো হয়।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »