বার্তাবাংলা ডেস্ক »

‘দ্য ভয়েস ইন্ডিয়া কিডস’ নামে রিয়্যালিটি শোতে এক প্রতিযোগী শিশুকে জোর করে চুমু দেওয়ায় তোপের মুখে পড়েছেন প্রতিযোগিতার অন্যতম বিচারক ও সংগীতশিল্পী পাপন মোহান্ত। তবে তখন তাঁর পাশে ছিলেন সেই প্রতিযোগীর বাবা আর অ্যান্ড টিভির কর্তৃপক্ষ। এখন চ্যানেলটির কর্তৃপক্ষও পাপনের সঙ্গে তাদের চুক্তি বাতিল করেছে। এই ঘটনায় পাপনের সহশিল্পীরা মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

ভারতীয় বিনোদন সংস্থা এসেল গ্রুপ অব কোম্পানির চেয়ারম্যান ও ভারতের রাজ্যসভার সদস্য সুভাষ চন্দ্র টুইটারে লিখেছেন, ‘আমি আমার কোম্পানির কর্মকর্তাদের জানিয়ে দিয়েছি, আমরা এই সংগীতশিল্পীকে নিয়ে আর কোনো কাজ করব না। এই গ্রুপের আর কোনো প্রকল্পেই এই গায়ককে দেখা যাবে না।’ পরে আরেকটি টুইটে তিনি জানান, ইতিমধ্যে পাপনের শুট করা যে কয়েকটি পর্ব প্রচারের বাকি ছিল, সেখান থেকেও সম্পাদনা করে পাপনের দৃশ্য বাদ দেওয়া হবে। তবে পাপন যে পর্বগুলোয় বিচারকের দায়িত্বে ছিলেন, সেই পারিশ্রমিক তাঁকে পরিশোধ করে দেওয়া হবে। উল্লেখ্য, অ্যান্ড টিভি চ্যানেলটি এসেল গ্রুপের অন্তর্ভুক্ত প্রতিষ্ঠান। এই টিভি চ্যানেলেই রিয়্যালিটি শোটি প্রচারিত হয়।

গত শুক্রবার পাপন তাঁর অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে এই ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন এবং ক্ষমা চেয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ‘আমি বলছি না আমি কোনো ভুল করিনি। আমি খুব স্বাভাবিকভাবেই কাজটি করেছি। কিন্তু আমার চিন্তা যতই নিষ্পাপ হোক না কেন, বর্তমান যুগে একটি মেয়েশিশুকে স্পর্শ করাও যৌক্তিক না। এ জন্য আমি দুঃখিত। দয়া করে এই বোকামি ও নির্বুদ্ধিতার জন্য আমাকে ক্ষমা করুন। আর আমাকে ওসব জঘন্য নামে ডাকা বাদ দিন।’

এদিকে পাপন জানান, এখন তিনি ‘দ্য ভয়েস ইন্ডিয়া কিডস’ প্রতিযোগিতার বিচারকের দায়িত্ব পালন করার মতো মানসিক অবস্থায় নেই। তাঁর বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগের তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত এই বিচারকাজ থেকে সরে আসার ঘোষণা দেন পাপন। তবে তদন্ত শেষ হওয়ার আগে এরই মধ্যে তাঁকে এই দায়িত্ব থেকে বাদ দিয়েছে অ্যান্ড টিভির কর্তৃপক্ষ। ভারতের মহারাষ্ট্রের নারী ও শিশু কল্যাণ বিভাগ মন্ত্রীর নির্দেশে ইতিমধ্যেই মুম্বাই পুলিশ ঘটনাটির তদন্ত শুরু করেছে। হিন্দুস্তান টাইমস।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »