বার্তাবাংলা ডেস্ক »

পাকিস্তানের খ্যাতনামা আইনজীবী ও মানবাধিকারকর্মী আসমা জাহাঙ্গীর (৬৬) মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। আজ রোববার পাকিস্তানের লাহারে তাঁর মৃত্যু হয়। মৃত্যুর সময় তিনি দুই মেয়ে ও এক ছেলে রেখে গেছেন।

আসমা জাহাঙ্গীরের পরিবার সূত্র জানায়, হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর তাঁকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়।
স্পষ্ট কথাবার্তা এবং মানবাধিকার বিষয়ে আপোসহীন অবস্থানের জন্য সুবিদিত ছিলেন এই মানবাধিকারকর্মী। পাকিস্তানের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে তাঁর ভূমিকা উজ্জ্বল।
১৯৫২ সালের জানুয়ারিতে লাহোরে জন্ম নেন আসমা জাহাঙ্গীর। কিনাইআর্ড কলেজ থেকে স্নাতক এবং পাঞ্জাব ইউনিভার্সিটি থেকে এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি। এরপর তিনি লাহোর হাইকোর্টে যোগ দেন। পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়শনের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট ছিলেন তিনি।

২০০৭ সালে পাকিস্তানে আইনজীবীদের ঐতিহাসিক আন্দোলেন সক্রিয় ভূমিকা ছিল আসমা জাহাঙ্গীরের। ওই আন্দোলনে অংশ নেওয়ার জন্য তাঁকে গৃহবন্দী করা হয়।
পাকিস্তানের মানবাধিকার কমিশনের সহপ্রতিষ্ঠাতা ছিলেন তিনি।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »