বার্তাবাংলা ডেস্ক »

সংযুক্ত আরব আমিরাতের ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিদায়ী রাষ্ট্রদূত সাঈদ বিন হাজার আল সেহি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে এলে শেখ হাসিনা এই আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সরকার দেশের বিভিন্ন স্থানে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলছে। এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগের জন্য পর্যাপ্ত জায়গা ও শিল্প গড়ে তোলার অবকাঠামোও প্রস্তুত করা হয়েছে। আরব আমিরাতের ব্যবসায়ীরা এখানে যেকোনো ধরনের শিল্প স্থাপনের সুযোগ গ্রহণ করতে পারে।’

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। প্রেস সচিব বলেন, বৈঠকে তাঁরা দুই দেশের স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট নানা বিষয়ে আলোচনা করেন।
বিদায়ী রাষ্ট্রদূত জানান, তাঁর দায়িত্ব পালনকালে বাংলাদেশ ও আরব আমিরাতের মধ্যে তিনটি চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। এই চুক্তিগুলোর মধ্যে রয়েছে- বিমান যোগাযোগ সেবা, নিরাপত্তা সহযোগিতা ও সাজাপ্রাপ্ত বন্দি বিনিময় চুক্তি। এ ছাড়া, বিদ্যুৎ বিভাগের সঙ্গে দুটি সমঝোতা স্মারকও স্বাক্ষরিত হয়েছে।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সরকারের লক্ষ্য ২০২১ সাল নাগাদ বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা ২৪ হাজার মেগাওয়াটে উন্নীত করে দেশের প্রত্যেক ঘরে বিদ্যুতের আলো পৌঁছে দেওয়া। তিনি দুই দেশের মধ্যে ‘গভর্মেন্ট টু গভর্মেন্ট’ সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য বাংলাদেশের সরকারি ও কূটনৈতিক পাসপোর্টের ক্ষেত্রে আরব আমিরাতে ভিসা মুক্ত চলাচলের সুযোগ সৃষ্টির আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রদূত বলেন, আগামী ফেব্রুয়ারিতে দুই দেশের মধ্যে অনুষ্ঠেয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে বিষয়টি আলোচনা করা হবে।

এ সময় চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়াতে বিশেষায়িত হাসপাতাল করার ক্ষেত্রে সংযুক্ত আরব আমিরাতের যে প্রস্তাব ছিল তা পুনরুজ্জীবনেরও আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী ।

সাঈদ বিন হাজার আল সেহির দায়িত্ব পালনকালে দুই দেশের সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার জন্যও প্রধানমন্ত্রী তাঁকে ধন্যবাদ জানান।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী এবং প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »