বার্তাবাংলা ডেস্ক »

সুন্দরবনে ঘুরতে আসা বিদেশি পর্যটকদের কাছ থেকে একটি ড্রোন জব্দ করেছে সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগ। তবে তাদের কাউকে আটক করেনি বন বিভাগ।

এ ঘটনায় আজ বুধবার দুপুরে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাওলাদার আজাদ কবির বাদী হয়ে বিদেশি পর্যটকদের নিয়ে ঘুরতে আসা স্থানীয় মাবানা ট্যুরস লিমিটেডের মালিক মো. নান্টুর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

গতকাল মঙ্গলবার সকালে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের দুবলারচরের আলোরকোল এলাকা থেকে ওই ড্রোন জব্দ করা হয়।

সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. মাহমুদুল হাসান চৌধুরী এই প্রতিবেদককে বলেন, স্থানীয় মাবানা ট্যুরস লিমিটেড নামের একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ৪ ডিসেম্বর বন বিভাগের অনুমতি নিয়ে তিন দিনের জন্য মাল্টার ১২ জন পর্যটককে নিয়ে সুন্দরবনে ঘুরতে আসে। ৫ ডিসেম্বর তারা সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের দুবলারচরের আলোরকোল এলাকায় পৌঁছে একটি ড্রোন উড্ডয়ন করে। ড্রোনটি উড়তে দেখে দুবলা স্টেশনে কর্মরত বনপ্রহরীরা তা নামাতে বলেন এবং জব্দ করেন। পরে তাদের সুন্দরবন থেকে বের হয়ে যেতে এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের বেআইনি কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকতে মাবানা ট্যুরসকে নির্দেশ দেওয়া হয়। ওই ড্রোনে সুন্দরবনের কোন কোন এলাকার চিত্র ধারণ করা হয়েছে, তা পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে।

মাহমুদুল হাসান আরও বলেন, মাবানা ট্যুরস লিমিটেড সুন্দরবনে বিদেশিদের নিয়ে প্রবেশের সময় তাদের কাছে যে ড্রোন রয়েছে তা গোপণ করেছে, যা বন আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। তাই বন বিভাগ মাবানা ট্যুরস লিমিটেডের বিরুদ্ধে বন আইনে একটি মামলা করেছে।

মাবানা ট্যুরস লিমিটেডের মালিক মো. নান্টুর সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলার চেষ্টা করে তাঁকে পাওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »