মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো রাষ্ট্রপতির কুলখানি » Leading News Portal : BartaBangla.com

বার্তাবাংলা ডেস্ক »

monajatবার্তাবাংলা ডেস্ক :: প্রয়াত রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমানের কুলখানি উপলক্ষ্যে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে আয়োজিত দোয়া মাহফিল ও কোরআনখানি শেষ হলো মোনাজাতের মধ্য দিয়ে।

কুলখানি উপলক্ষ্যে শনিবার বাদ জোহর থেকে শুরু হয় কোরআন তেলাওয়াত। বাদ আছর মিলাদ মাহফিল শেষে রাষ্ট্রপতির আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত শুরু হয় বিকাল ৫টা ৪০ মিনিটে।

মোনাজাত পরিচালনা করেন বায়তুল মোকাররমের খতিব মাওলানা মুফতি অধ্যক্ষ সালাহউদ্দিন।

মিলাদ মাহফিল ও মোনাজাতে উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রপতির পুত্র নাজমুল হাসান পাপন সহ তার পরিবারের সদস্যরা।

এছাড়া এ কুলখানি অনুষ্ঠানে অংশ নেন রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ, বিভিন্ন রাষ্ট্রের কূটনীতিকরা সহ সর্বস্তরের সাধারণ মানুষ।

উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিবর্গের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেন, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, জাতীয় পার্টির মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর আহমেদ, আ স ম আব্দুর রব, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু, প্রধানমন্ত্রীর সংস্থাপন বিষয়ক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম,  বেসামরিক বিমান ও পর্যটন বিষয়ক মন্ত্রী ফারুক খান, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, সংস্কৃতি মন্ত্রী আবুল কালাম আজাদ, খাদ্যমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাক, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক, স্বরাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু,  বিজিবির সাবেক মহাপরিচালক মেজর জেনারেল রফিকুল ইসলাম, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া প্রমুখ, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার বেনজীর আহমেদ, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক শামীম মোহাম্মদ আফজাল, আওয়ামীলীগ নেতা শহীদুল ইসলাম মিলন ও জামাল আহমেদ।

এছাড়া বিদেশী কূটনীতিকদের মধ্যে অংশ নেন পাকিস্তান, ফিলিপাইন, আফগানিস্তান, মালদ্বীপের রাষ্ট্রদূতগণ এবং ভ্যাটিকান সিটির প্রতিনিধি।
ধর্ম মন্ত্রণালয় ও ইসলামিক ফাউন্ডেশন রাষ্ট্রপতির আত্মার মাগফিরাত কামনায় এ কুলখানি ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেছে।

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »