বার্তাবাংলা ডেস্ক »

OXFAM Logoবার্তাবাংলা রিপোর্ট :: NAARIকনসোর্টিয়াম এর অধীনে ছয়টি আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থার অংশগ্রহণে মারাতœকভাবে জলাবদ্ধ জনগণের আবাসন এবং স্যানিটেশন সুবিধা নিশ্চিতকরণের জন্য নেওয়া উদ্যোগে সাতীরা এবং যশোরের প্রায় ১২০০০ জলাবদ্ধ মানুষ আবাসন ও স্যানিটেশন সমস্যার স্থায়ী সমাধান পেয়েছে।

বন্যা প্রতিরোধী আবাসন ও স্বাস্থ্যসম্মত পয়:নিষ্কাশন বা ফ্রেশ (FRESH) প্রকল্পটি NAARI কনসোর্টিয়াম অক্সফ্যাম, একশন এইড, কেয়ার, কনসার্ন ওয়ার্ল্ড ওয়াইড, ইসলামিক রিলিফ এবং সলডারিটিস এর উদ্যোগে ২০১২ সালে নেওয়া হয়। প্রকল্পটির মাধ্যমে, ২০১১ সালের বন্যায় বাড়িঘর ধ্বংসপ্রাপ্ত এবং জলবদ্ধতায় তিগ্রস্ত জনগণকে দুর্যোগ সহিষ্ণু আবাসন ও স্বাস্থ্যসম্মত পয়:নিষ্কাশন সহায়তা দেওয়া হয়েছে।
গতকাল ২৩শে মার্চ, শনিবার এ প্রকল্পের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত অর্জিত অভিজ্ঞতা এবং ফলাফল সমূহ বিনিময়ের জন্য ঢাকায় একটি জাতীয় কর্মশালার আয়োজন করা হয়। এ কর্মশালার প্রধান অতিথি এনজিও ব্যুরোর ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক জনাব রওনক মাহমুদ বলেন, ফ্রেশ এর মত উদ্যোগ গ্রহণ না করলে বাংলাদেশের দনি পশ্চিম অঞ্চল আরেকটি দারিদ্রপূর্ণ অঞ্চল হিসেবে আবির্ভূত হত। তিনি সাতীরা ও যশোর জেলার জনগণের দুর্ভোগ দূরীকরণে সরকারের পাশাপাশি এগিয়ে আসার জন্য সকল উন্নয়ন সংস্থাকে ধন্যবাদ দেন। তিনি আরও বলেন, এখনও অনেক এলাকা আছে যেখানে জলাবদ্ধতা দূরীকরণে সহায়তা প্রয়োজন এবং কনসোর্টিয়াম এর এ উদ্যোগ সেসব এলাকায় নেওয়া প্রয়োজন।
এর আগে কায়সার রিজভী, অক্সফ্যাম মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এবং অক্সফ্যাম কান্ট্রি ডিরেক্টর গ্যারেথ প্রাইস জোনস, অক্সফ্যামের নেতৃত্বে কনসোর্টিয়ামের উদ্দেশ্য সম্বন্ধে সংক্ষেপে বর্ণনা করেন।

এছাড়া একেএম মুসা, কান্ট্রি ডিরেক্টর, কনসার্ন ওয়ার্ল্ড ওয়াইড, মোঃ আব্দুল কাইয়ুম, অতিরিক্ত সচিব ও জাতীয় প্রকল্প পরিচালক, সিডিএমপি বক্তব্য রাখেন। স্থানীয় সরকার প্রতিনিধি, দাতা সংস্থা, সরকারী প্রতিনিধিবৃন্দ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, সাংবাদিক এবং NAARI কনসোর্টিয়ামের সদস্যবৃন্দ কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »