বার্তাবাংলা ডেস্ক »

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ছোট ভাই আহমেদ কামাল মারা গেছেন। (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন) বৃহস্পতিবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে তিনি রাজধানীর সবুজবাগের বাসায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

আহমেদ কামালের মরদেহ বর্তমানে রাজধানীর হলি ফ্যামিলি হাসপাতালে রাখা হয়েছে। বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইয়ং কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

জিয়াউর রহমানের পাঁচ ভাইয়ের মধ্যে একমাত্র তিনিই বেঁচে ছিলেন। ৬৮ বছর বয়সী আহমেদ কামাল উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, হাইপারটেনশনসহ নানা রোগে ভুগছিলেন। ২৫ জুলাই আহমেদ কামাল ইব্রাহীম কার্ডিয়াকের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন। ইব্রাহীম কার্ডিয়াক হাসপাতালের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. লিয়াকত আলীর তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

আহমেদ কামাল রাজধানীর বাসাবো থানা সংলগ্ন একটি বাসায় একাকী জীবনযাপন করতেন। ব্যাচেলর জীবনকেই স্বাচ্ছন্দ্যময় মনে করেন তিনি। ওই বাসার ঠিকানাও কাউকে দিতেন না। চাকরি জীবনে সৎ ও দেশপ্রেমিক ছিলেন আহমেদ কামাল। বাসাবোয় তার ভাতিজা শরিফুল ইসলাম ডন ও তার বন্ধু মনজুরুল ইসলাম নিয়মিত খোঁজ খবর রাখতেন।

জিয়া পরিবারের কেউ আহমেদ কামালের খোঁজ খবর রাখতেন না। মাঝেমধ্যে তারেক রহমান খোঁজ খবর রাখলেও লন্ডনে যাওয়ার পর আর যোগাযোগ নেই আহমেদ কামালের সঙ্গে। আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গেও নেই তার কোনো যোগাযোগ। বন্ধুবান্ধবরাই ছিল আহমেদ কামালের ভরসা। জিয়াউর রহমানের ছোট ভাই সর্বশেষ বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের ডিরেক্টর ছিলেন। সেখান থেকে অবসরে যাওয়ার পর ঢাকায় একাকী জীবন যাপন করতেন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »