বার্তাবাংলা ডেস্ক »

পাবনার চাটমোহর উপজেলার মূলগ্রাম ইউনিয়নের মাথা জোড়া লাগানো যমজ কন্যাশিশু রাবেয়া-রোকাইয়াকে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওই শিশু দুটির চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানান ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের প্রধান সমন্বয়ক সামন্ত লাল সেন।

পাবনার চাটমোহর উপজেলার মূলগ্রাম ইউনিয়নের আটলংকা গ্রামের স্কুলশিক্ষক রফিকুল ইসলাম-তাসলিমা দম্পতির তিন সন্তান। প্রথম সন্তানও মেয়ে। এরপর মাথা জোড়া লাগানো এই দুই মেয়ের জন্ম হয়েছে। গত বছর পাবনা শহরের একটি ক্লিনিকে ভর্তি হলে সেখানে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে এই যমজের জন্ম হয়।

মা তাসলিমা খাতুন বলেন, মেয়ে দুটি বড় হচ্ছে। তাদের আলাদা করা নিয়ে চিন্তায় আছেন তিনি। তাদের স্বাভাবিক জীবন নিয়ে তাঁর যতো দুশ্চিন্তা।

সামন্ত লাল সেন জানান, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তাদের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের এখন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে। তাদের জন্য বোর্ড বসাতে হবে। তারপর কি অবস্থা বোঝা যাবে।

শিশুটির পরিবারের ভাষ্য, স্থানীয় সাংসদের মাধ্যমে শিশুটির অবস্থা প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত পৌঁছানো হয়। তিনি শিশুটির চিকিৎসায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন। এর আগে শিশু দুটি হাসপাতালের শিশু বিভাগে চিকিৎসা নিয়েছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »